২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

কুলাউড়ায় ১৩টি মোবাইলসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল উদ্ধার, গ্রেফতার ১

প্রকাশিত: এপ্রিল ১, ২০২৩

ফেইসবুক শেয়ার করুন

কুলাউড়ায় পুলিশের অভিযানে চোরাইকৃত ১৩টি মোবাইল ফোন ও লক্ষাধিক টাকার মালামাল উদ্ধারসহ কামরুল হাসান (১৯) নামে এক চোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) ভোররাতে উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ চোরাই মালামালসহ আসামি কামরুলকে গ্রেপ্তারে সক্ষম হয়।
গ্রেফতার কামরুল ওই ইউনিয়নের আদমপুর নিবাসী তৈমুছ মিয়া ওরফে বাঘা মিয়ার ছেলে।

থানাসূত্রে জানা যায়, উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের মধ্য ব্রাহ্মণবাজারস্থ শিপার চৌধুরী ম্যানশন মার্কেটের শাহিন মিয়ার মালিকানাধীন ‘মা টেলিকম’ দোকানে গত বুধবার (২৯ মার্চ) দিবাগত রাতে এক দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়। চোর দোকানের সাটারের ৪টি তালা ভেঙে দোকানে ঢুকে বিভিন্ন মডেলের ১৩টি মোবাইল ফোন, ১টি কম্পিউটার মনিটর, নগদ ২ হাজার ২ শত টাকাসহ সর্বমোট লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

বিষয়টি থানা পুলিশকে দোকানের মালিক অবহিত করলে চুরির পরদিন কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুছ ছালেকের নেতৃত্বে এসআই মোহাম্মদ আমির উদ্দিনসহ পুলিশের একটি চৌকস টিমসহ চোরকে গ্রেফতার ও মালামাল উদ্ধারের জন্য অভিযানে নামে। অভিযানকালে পার্শ্ববর্তী দোকানের সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ঘটনায় জড়িত চোর কামরুল হাসানকে শনাক্ত করে ব্রাহ্মণবাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে চোরাইকৃত বিভিন্ন মডেলের ১৩টি মোবাইল ফোন, ১টি কম্পিউটার মনিটর, নগদ ২ হাজার ২ শত টাকা ও চুরির কাজে ব্যবহৃত লোহার শাবল, হাতুড়ি, কাঠে সংযুক্ত লোহা কাটার ব্লেড উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।
এ ব্যাপারে ওসি মো. আব্দুছ ছালেক বলেন, দোকানের মালিক শাহিন মিয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে আসামির বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করে আসামিকে বিকেলে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

298 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন