৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

কুলাউড়া উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নে ভোটের জরিপে সবার শীর্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুর রহমান মনির

আপডেট: নভেম্বর ২৫, ২০২১

New Project (1)
ফেইসবুক শেয়ার করুন

কুলাউড়া সংবাদ:: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কুলাউড়া উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। হাকালুকি হাওর অধ্যুষিত এই ভূকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের এবারকার নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন আজিজুর রহমান মনির। তাঁর সাথে প্রতিদ্বন্ধিতায় রয়েছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মইনুল ইসলাম সোহাগ। এছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী আব্দুল আজিজ (লাঙ্গল) প্রতীকে লড়ছেন।
তফসীল অনুযায়ী ১২ নভেম্বর প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দের পর জোরেশোরে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন প্রার্থীরা। এরমধ্যে আজিজুর রহমান মনিরের ছবি ও আনারস প্রতীকের ছবি সংবলিত পোস্টার ঝুলছে ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামের পাড়া মহল্লায়। নিজের কর্মী-সমর্থক ও অনুসারীদের নিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুর রহমান মনির ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত গণসংযোগ চালাচ্ছেন এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার জন্য আনারস প্রতীকে ভোট কামনা করছেন। প্রতিদিন সন্ধ্যা হলেই শুরু হয় ইউনিয়নের হাটবাজার, চায়ের দোকান, হোটেলে নির্বাচনী আলাপন। এসময় ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে নিয়ে করেন আলোচনা। ভোটারদের আলোচনায় ভোটের জরিপে সবার শীর্ষে রয়েছেন ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান মনির। তিনি প্রচারণার দিক দিয়ে অন্যান্য প্রার্থীর চেয়ে বেশি এগিয়ে রয়েছেন। এছাড়া তিনি প্রতিদিন ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে উঠোন বৈঠক ও গণসংযোগের মধ্যে দিয়ে তিনি তাঁর নির্বাচনী কার্যক্রম চালাচ্ছেন।

গত ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তিন বারের নির্বাচিত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনুকে ৪৪৬ ভোটের ব্যবধানে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে চমক দেখান আজিজুর রহমান মনির। ওই নির্বাচনে আজিজুর রহমান মনির ভোট পান ৫ হাজার ২৪৬ ও রফিকুল ইসলাম রেনু পান ৪৮০০ ভোট।
ভূকশিমইল ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান বলেন, গত নির্বাচনে বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছিলাম। ৫ বছর মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে ছিলাম। তাই মানুষের দাবি ও এলাকার অসমাপ্ত উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। আমার সময়কালে ভূকশিমইল ইউনিয়নের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেছি। হাকালুকি হাওর অধ্যুষিত আমাদের ভূকশিমইলকে যোগাযোগের ক্ষেত্রে মডেল ইউনিয়নে পরিণত করার চেষ্টা করেছি। গেল ৫ বছর নিজের মেধা, সততা ও সুনাম অক্ষুন্ন রেখে নিঃস্বার্থভাবে ইউনিয়নবাসীর সেবা করেছি। তিনি আরো বলেন, এবারকার নির্বাচনে ইউনিয়নের প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় গিয়ে গণসংযোগকালে মানুষের ব্যাপক উদ্দীপনা ও সাড়া পাচ্ছি। আমি আশাবাদী আগামী ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে এলাকার মানুষ আমাকে মূল্যায়ন করে আনারস প্রতীকে ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী করবেন।

336 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন