২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

ব্যাংক কর্মকর্তা মওদুদ আহমদ হত্যার প্রতিবাদে কুলাউড়ায় মানববন্ধন

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১

ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনি চৌধুরী :: অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা মওদুদ আহমদ হত্যার প্রতিবাদে বুধবার বিকেলে কুলাউড়া শহরে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন কুলাউড়া উপজেলা শাখার আয়োজনে শহরস্থ চৌমুহনীতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে সকল সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করে মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে জড়িতদের কঠোর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানানো হয়।
ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন কুলাউড়া উপজেলা শাখার সভাপতি কুলাউড়া সোনালী ব্যাংক ম্যানেজার শাফি চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সম্পাদক কুলাউড়া অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা সুজিত কুমার দে’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাউথইষ্ট ব্যাংক ম্যানেজার আব্দুর রব, অগ্রণী ব্যাংক ম্যানেজার মোশাররফ হোসেন, ইউসিবিএল ব্যাংক ম্যানেজার আবুল ফাত্তাহ পলাশ, পুবালী ব্যাংক ম্যানেজার নুপুর বৈদ্য, সাউথইষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তা সুয়েবুর রহমান, ইসলামী ব্যাংক কর্মকর্তা মনির হোসেন ও বাকি বিল্লাহ প্রমুখ। বক্তারা অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা মরহুম মওদুদ আহমদ এর রুহের মাগফেরাত কামনা করে ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে অবিলম্বে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সকল আসামিদের আইনের আওতায় এনে ফাসির দাবী জানান।
উল্লেখ্য, জৈন্তাপুর উপজেলার অগ্রণী ব্যাংক হরিপুর গ্যাস ফিল্ড শাখার কর্মকর্তা ও ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর উপজেলা নিবাসী মওদুদ আহমদকে গত শনিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে চালক হাছনুরসহ তার সহযোগীরা মারধর করে তাকে গুরুতর আহত করে। পরে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আব্দুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করলে মামলার প্রধান আসামি সিএনজি অটোরিকশা চালক নোমান হাছনুর বুধবার সকাল ১১টায় সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালতে আত্মসমর্পণ করে। শুনানী শেষে আদালতের বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। হাছনুর সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের টুকেরগাঁও পশ্চিমপাড়া গ্রামের আব্দুল হান্নানের ছেলে।

663 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন