২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

কুলাউড়ায় সুলতান মনসুরের পরামর্শে জীবাণুনাশক স্প্রে করার অনুমতি দিলেন ফায়ার মহাপরিচালক

আপডেট: মার্চ ২৮, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনি চৌধুরী ঃ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে কুলাউড়া উপজেলায় এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ এর পরামর্শে ও ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ সাজ্জাদ হোসাইনের অনুমতিক্রমে শনিবার কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ী দিয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও বাজার এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।
কুলাউড়া পৌরসভা মেয়র শফি আলম ইউনছ এর তত্বাবধানে পৌরসভা থেকে সরবরাহকৃত ব্লিচিং পাউডার দিয়ে শনিবার কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বেলায়েত হোসেন এর নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ী দিয়ে কুলাউড়া রেলওয়ে ষ্টেশন এলাকা, দক্ষিন বাজার এলাকা, উত্তরবাজার এলাকা, শহরস্থ ‘কুলাউড়া পলি ক্লিনিকের ‘আইসোলেশন সেন্টার’, প্রধান সড়ক, সরকারী অফিস ও আবাসিক এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়।
জানা যায় কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ী দিয়ে গত বৃহস্পতিবার জীবাণুনাশক স্প্রে করার পর থেকে ফায়ার অধিদপ্তর থেকে ২৭ মার্চ থেকে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি দিয়ে বাংলাদেশের কোথাও জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো যাবেনা বলে নির্দেশনা দেয়ায় উক্ত কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।
পরবর্তীতে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবর পেয়ে মৌলভীবাজার-২ আসনের এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ কুলাউড়ার মানুষের কথা চিন্তা করে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ সাজ্জাদ হোসাইনের সাথে পরামর্শমুলক ফোনালাপ করেন। পরে সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের ফোনালাপের প্রেক্ষিতে অবশেষে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক শুধুমাত্র কুলাউড়ায় শনিবার পানিবাহি গাড়ী নিয়ে জীবাণুনাশক ওষুধ ছিটানোর অনুমতি দিলে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিস জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো কার্যক্রম পরিচালনা করে।

878 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন