১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

কুলাউড়া পুলিশের অভিযানে চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার ৪

আপডেট: মার্চ ২৭, ২০২১

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেক্স রিপোর্ট :: কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা নিবাসী জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে ১০ লাখ টাকা চাদা দাবীর মামলায় কুলাউড়া থানা পুলিশের দু’দিনের এক ঝটিকা অভিযানে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায়ের সার্বিক দিক নির্দেশনায় কুলাউড়া থানার এসআই মাসুদ আলম ভুঁইয়ার নেতৃত্বে পুলিশ সফল অভিযান চালিয়ে আসামিদের মধ্যে ৪ জন কুখ্যাত চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। গ্রেফতারকৃত রুহেল, রকি, ফাহিম ও সালাহ উদ্দিনকে শনিবার মৌলভীবাজার কোর্টে সোপর্দ করা হয়েছে।
মামলার বাদী পৃথিমপাশা ইউনিয়নের কানিকিয়ারী নিবাসী ভুক্তভোগী জাহাঙ্গীর হোসেন গত বুধবার মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়েরকৃত মামলায় অভিযোগ করেন একই এলাকার পার্শ্ববর্তী বাড়ির রুয়েল হোসেন গং তার মালিকানাধীন ভূমি জোরপূর্বকভাবে দখল করার জন্য গত ১৮ মার্চ সকালে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতিসহ কয়েকজনকে আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা রয়েছে। এমতাবস্থায় ভূমির পাকা দেয়াল নির্মানের কাজ শুরু করলে রুয়েল গং বিভিন্ন বাধা-বিপত্তি প্রদান করে। এক পর্যায়ে তার কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। অন্যথায় উক্ত ভু-সম্পত্তি ভোগ দখল করতে পারবে না বলে প্রাণে হত্যার হুমকি প্রদান করছে। উক্ত মামলার প্রেক্ষিতে কুলাউড়া থানার এসআই মাসুদ আলম ভুঁইয়ার নেতৃত্বে পুলিশ গত শুক্রবার ও শনিবার দু’দিনব্যাপী উপজেলার বিভিন্নস্থানে এক সাড়াশি অভিযান চালিয়ে কুখ্যাত চাদাবাজ কানিকিয়ারি নিবাসী দিলদার মিয়ার পুত্র রুয়েল হোসেন, পৃথিমপাশা নিবাসী আব্দুল জব্বার এর পুত্র রকি আহমদ ও পারভেজ মিয়ার পুত্র ফাহিম আহমদ এবং কাদিপুর ইউনিয়নের মনসুর নিবাসী মৃত আলাল উদ্দিনের পুত্র সালাহ উদ্দিন আহমদ খোকনসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসআই মাসুদ আলম ভুঁইয়া জানান, মামলার অপর আসামিদের গ্রেফতারে জোর পুলিশী অবিযান অব্যাহত রয়েছে।

259 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন