২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

কুলাউড়া পৌরসভা মেয়রের পিতৃ বিয়োগ

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১

ফেইসবুক শেয়ার করুন

এস আর অনি চৌধুরী :: কুলাউড়া পৌরসভা মেয়র অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ এর পিতা কুলাউড়া শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল বারী ওরফে ছমরু মিয়া শনিবার রাত ৯. ২০ মিনিটে শহরের কাছুরকাপনস্থ নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯১ বছর। তিনি ৩ ছেলে, ৩ মেয়েসহ অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী, আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন। তিনি দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ দুরারোগ্য রোগে শয্যাশায়ী ছিলেন। মরহুমের নামাজে জানাজা রোববার নিজ বাড়ির নিকটস্থ কাছুরকাপন জামে মসজিদ সম্মুখে বেলা ২. ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয়। নামাজে জানাজায় মরহুমের স্মৃতিচারণ করে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক এমপি এম এ মুনিম চৌধুরী বাবু, মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান ফজলু, কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু, মরহুমের পুত্র কুলাউড়া পৌরসভা মেয়র অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ, কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সম্পাদক আতিকুর রহমান আখই প্রমুখ।

নামাজে জানাজায় কুলাউড়া ইউএনও এটিএম ফরহাদ চৌধুরী, কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাদেক কাওসার দস্তগীর, কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম, বড়লেখা পৌরসভা মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী, বিয়ানীবাজার পৌরসভা মেয়র আব্দুস শুকুর, মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক লোক অংশগ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য, মরহুমের বড় ছেলে ব্যবসায়ী মো. মিছবা উদ্দিন, ২য় ছেলে কুলাউড়া পৌরসভা মেয়র অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ ও ৩য় ছেলে পৌর যুবলীগের আহবায়ক শাহীন আহমদ। তিন মেয়ের মধ্যে ছোট মেয়ে কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত প্রথম মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তানিয়া আক্তার লিমাসহ দুই মেয়ে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ও এক মেয়ে মৌলভীবাজার আইনজীবী সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. মাহবুব আলম শামীমের স্ত্রী ।
শোক প্রকাশ : হাজী আব্দুল বারী ওরফে ছমরু মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে শোক বিবৃতি প্রদান করেছেন এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ, সাবেক এমপি নওয়াব আলী আব্বাস খাঁন ও আব্দুল মতিন, কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সফি আহমদ সলমান, ভাইস চেয়ারম্যান মাও. ফজলুল হক খান সাহেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেহা ফেরদৌস চৌধুরী পপি, কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু, সম্পাদক আসম কামরুল ইসলাম, আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নওয়াবজাদা আলী ওয়াজেদ খান বাবু, কুলাউড়া বাকশিস সভাপতি অধ্যক্ষ ফজলুল হক ফজলু ও সম্পাদক কুলাউড়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ সৌম্য প্রদীপ ভট্টাচার্য সজল, উপাধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল হান্নান, কুলাউড়া ইয়াকুব-তাজুল মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ (ভার:) এমদাদুল ইসলাম ভুট্টো, কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যক্ষ মো. আব্দুল কাদির, সম্পাদক প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মতিন, সাবেক সভাপতি অব: প্রধান শিক্ষক মো. খুরশীদ উল্লাহ, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সভাপতি এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, সম্পাদক খালেদ পারভেজ বখস, কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল, সম্পাদক আতিকুর রহমান আখই, কুলাউড়া পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরবিন্দু ঘোষ বিন্দু ও সম্পাদক নির্মাল্য মিত্র সুমন প্রমুখ ।

328 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন