৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

জমকালো আয়োজনে বিশিষ্ট সাংবাদিক কাদের তাপাদারের জন্মদিন উদযাপন

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেস্ক রিপোর্ট :: গত তিন দশকে বর্ণিল সাংবাদিকতার এক সংগ্রামে মাতোয়ারা তাঁর জীবন। কতো বিচিত্র বিষয় নিয়ে তাঁর যাপিত সাংবাদিক জীবন। সাধারণ মানুষের হাসি কান্নার গল্পগুলো শব্দের আস্তরণে পাকাপোক্ত হয়েছে তাঁর হাতে। রাজনীতির অলিগলির বিষয় নিয়ে দু:সাহসী রিপোর্টিং আলোড়ন তুলেছে দেশময়। সাধারণ বিষয়ের গভীরে ঢুকে অসাধারণ অনুসন্ধান কখনো কখনো সিলেট কাঁপিয়েছে।

প্রতিভা আর মেধার মিশেলে এক বিচিত্র নেশায় মগ্ন এই রিপোর্টারের জীবনধারা তাই নানামাত্রিকে সমৃদ্ধ করেছে সিলেটের আধুনিক সাংবাদিকতার জগতকে।

সময় মতো রাজধানীর বিশাল অঙ্গনে বিচরণ করতে পারলে তিনি আজ জাতীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ণ একটা অবস্থান তৈরি করতে পারতেন। তবে তাঁর সিলেটে অবস্থান এ অঞ্চলের সাংবাদিকতার মোড় ঘুরাতে যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করেছে।

সাংবাদিকতায় তাঁর ঈর্ষনীয় সাফল্য, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার নির্যাস থেকে আমরা অনেক কিছুই পেতে পারি। তারই হাত ধরে অনেক নামী ও মেধাবী সাংবাদিকের জন্ম হয়েছে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন দেশের গন্ডি পেরিয়ে সুদূর বিদেশেও।

আলোকিত ও আলোচিত সাংবাদিক আবদুল কাদের তাপাদার এর জন্মদিনে তাৎক্ষণিক আয়োজনে এমন কিছু বক্তব্য তুলে ধরেছেন তাঁর সতীর্থ সহকর্মী সাংবাদিক ও সুধীজনেরা।

অনাড়ম্বর এই আয়োজনটি ছিল খুবই তাৎক্ষণিক ও অঘোষিত। পরিকল্পনা নিয়ে দাওয়াত আমন্ত্রণের তেমন কোনো উদ্যোগ ছিল না এটি। তবুও উপস্থিত সুধীজনের ভালোবাসায় ব্যতিক্রমি বক্তব্য আর কথামালায় প্রাণবন্ত আড্ডায় ভরপুর হয়ে ওঠে এই সান্ধ্য আয়োজন।

সিলেট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ক্লাবের সভাপতি ও ডেইলি স্টার খ্যাত সিনিয়র সাংবাদিক ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এই আয়োজনে শরীক হন সিলেট আওয়ামী লীগের তৃণমূলের জনপ্রিয় নেতা, সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ।

জন্মদিনের আলোচনায় অংশ নিয়ে গল্পকার সাংবাদিক ও লেখক সেলিম আউয়াল বলেন, বলা যায় আবদুল কাদের তাপাদারের দুটো সত্তা-একটি সাংবাদিক অপরটি লেখক। এর মধ্যে তার সাংবাদিক সত্তাই প্রবল এবং তিনি সিলেটের একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক হিসেবে খ্যাত।

আমরা বিশ্বাস করি তার এই এগিয়ে চলায় তার সহধর্মিনী বিশিষ্ট কবি প্রভাষক ইশরাক জাহান জেলিও প্রেরণাদায়ক ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি বলেন, কাদের তাপাদার এর অনেকগুলো রিপোর্ট সিলেটে আলোড়ন তুলেছে। আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

মেধাবী সাংবাদিক, একাত্তর টিভির সিলেট ব্যুরোচীফ ইকবাল মাহমুদ বলেন, দীর্ঘদিন প্রিন্ট মিডিয়ায় কাজের পাশাপাশি আধুনিক সাংবাদিকতার জগতে অনলাইন গণমাধ্যমেও তিনি রেখে যাচ্ছেন দক্ষতার ছাপ। রিপোর্টিং নিয়ে তার স্বপ্নের বাতায়নে সিলেটের সাংবাদিকতার জমিন সমৃদ্ধ হয়েছে। প্রেসক্লাবের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদবীতে তাঁর বিজয় পেশাদার সাংবাদিকতার বিকাশ ও নেতৃত্বের আসনে তাঁকে অলংকৃত করেছে।

মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সিলেটের আঞ্চলিক সংবাদপত্রের অগ্রযাত্রায় কাদের তাপাদার এর যুগান্তকারী ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলের যার যা প্রাপ্য তা দিয়ে সন্তুষ্ট করতে পেরেছেন কাদের ভাই। তিনি আগামীদিনের সাংবাদিকতা বিকাশে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদান থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ইকবাল সিদ্দিকী সিলেটে নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে সাংবাদিকতা সামনে এগুচ্ছে উল্লেখ করে বলেন, আমাদের সামনের দিনগুলো খুব সুখের হবে বলে মনে হয় না। কোভিড আক্রান্ত বিশ্বপরিস্হিতিতে সিলেটেও গণমাধ্যমকে নানা সংকট সন্ধিক্ষণ মোকাবেলা করতে হতে পারে। তিনি সাংবাদিক কাদের তাপাদার এর পরিশ্রমী সাংবাদিকতার সাথে তার সহজাত সরলতার নানাদিক তুলে ধরেন।

তরুণ আইনজীবী ও দৈনিক সিলেটের ডাক এর বিশেষ সংবাদদাতা মোহাম্মদ তাজ উদ্দীন সিলেটের নানাবিধ বিষয়ে কাদের তাপাদার এর রিপোর্টগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে বলেন, তাঁর হাত দিয়ে সিলেটের নানা উল্লেখযোগ্য ঘটনার চমৎকার রিপোর্ট লেখা হয়েছে। যা আমরা অনেকেই পড়ে পড়ে বড় হয়েছি। তিনি এখন আরও বেশি রিপোর্ট ও সিলেটের সাংবাদিকতা নিয়ে গবেষণা বিষয়ক লেখার জন্য আহবান জানান।

সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল ‘এখন সিলেট ডটকম’ ও ‘জানালা ৭১ এর সম্পাদক আবদুল কাদের তাপাদারের জন্মদিন উদযাপনের এ আয়োজন করা হয় ৩১ জানুয়ারি (রবিবার) সন্ধ্যায় সিলেট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে।

এ সময় তাঁর জীবন ও কর্ম নিয়ে মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন সিলেটের একঝাঁক নবীন প্রবীন সাংবাদিক, কবি সাহিত্যিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

দৈনিক প্রভাত বেলা সম্পাদক কবীর আহমদ সোহেলের উপস্থাপনা ও সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, দৈনিক ইত্তেফাক সিলেট ব্যুরো চিফ হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী, সিলেট নিউজ টুয়েন্টি ফোর এর সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক খালেদ আহমদ, দৈনিক জৈন্তাবার্তা সম্পাদক ফারুক আহমদ, আইনজীবী ও সাংবাদিক তাজ উদ্দিন, একাত্তর টিভির সিলেট ব্যুরো প্রধান ইকবাল মাহমুদ, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাক, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির পাঠাগার সম্পাদক সাংবাদিক আব্দুল মুকিত অপি, কবি ইশরাক জাহান জেলি, সাংবাদিক শাফী চৌধুরী, সাংবাদিক জুলফিকার তাজুল, ব্যবসায়ী আতাউর রহমান, দৈনিক মুক্ত খবর এর সিলেট প্রতিনিধি ইসমাইল হোসেন, তরুণ সাংবাদিক আব্দুল কাদির জীবন, সাংবাদিক সেবুল আহমদ, আবদুল কাদের তাপাদার এর পুত্র তাপাদার নাহিয়ান মুরসালিন ও কন্যা তাপাদার জান্নাতুল জাহরা মেহরিন প্রমুখ।

আলোচনায় কাদের তাপাদার পত্নী প্রভাষক কবি ইশরাক জাহান জেলী বলেন, সাংবাদিকতার কঠিন পিচ্ছিল পথে তাঁর বিচরণ চলছে। এই পেশায় সম্মান ও সামাজিক যশ খ্যাতিই পরিবারের সুখের বৈভব। তিনি কঠিন নীতি আদর্শকে লালন করে এগিয়ে যেতে সামনের দিনগুলোতে তাঁর সুস্থ, সুন্দর ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

125 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন