২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে প্রতিহিংসা নয় : নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সুইট খান

আপডেট: ডিসেম্বর ১১, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

এস আর অনি চৌধুরী :: কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে বিজয়ী চশমা প্রতিকের প্রার্থী খোরশেদ আহমদ খান সুইট বলেছেন, নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে প্রতিহিংসা নয়, যার উদাহরণ সৃষ্টি করেছে বরমচালবাসী। গত বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) বরমচাল উপ-নির্বাচনে সরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা শেষে রাতে বরমচাল ইউনিয়নের ফুলেরতল বাজারে বিপুল সংখ্যক ভোটারসহ শুভাকাঙ্ক্ষীদের উপস্থিতিতে প্রতিক্রিয়া ব্যক্তকালে তিনি এ কথা বলেন।
নির্বাচিত সুইট খান আরও বলেন, নির্বাচনের দিন ভোট নিয়ে গুজব ছিল। তাই ভোটারসহ বরমচালবাসীদের সারাদিন উৎকণ্ঠা ও আতঙ্কের মধ্যে কাটাতে হয়েছে। ভোটাররা ভোট দিয়ে ফলাফল ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র ত্যাগ করেননি। তিনি প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর ভুয়সী প্রশংসা করে বলেন, তাদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের কারণে মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে তাদের ভোট দিতে পেরেছে। তিনি বরমচালবাসীদের আশ্বস্ত করে বলেন, তার মরহুম পিতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বরমচালের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের আমৃত্যু সভাপতি আব্দুল লতিফ খানের মতো তিনি সুখে দুঃখে মানুষের পাশে থেকে বরমচালবাসীদের খেদমত করে যাবেন। তিনি তাকে বিজয়ী করার জন্য বরমচালবাসীদের কৃতজ্ঞতা ও সহযোগিতার আহবান জানিয়ে একটি নির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারণ করে সবাইকে নিয়ে শোকরানা মিলাদ ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের নিয়ে প্রার্থনা অনুষ্ঠান করবেন বলে জানান।
উল্লেখ্য, ১০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিজয়ী সুইট খান তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ৪৮ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হন। নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থী সুইট খানের প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ৩২৮৮ ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শিষ প্রতিকের প্রার্থী মো. আব্দুল মোক্তাদির মুক্তারের প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৩২৪০। এছাড়া নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী মোট চার জনের অপর দুইজনের মধ্যে স্বতন্ত্র আনারস প্রতিকের প্রার্থী মো.খয়রুল আমিন চৌধুরী টিপু ১০১৮ ভোট এবং আওয়ামীলীগ দলীয় নৌকা প্রতিকের প্রার্থী সিএম জয়নাল আবেদীন ৯৬৬ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়ে উভয় প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন।

286 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন