২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

অবসরের পর সারারাত জার্সি পরে কেঁদেছিল ধোনি

আপডেট: আগস্ট ২১, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

মাঠে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে যেন আবেগ স্পর্শ করে না একেবারেই। দলের ভীষণ চাপের মুহূর্তেও মাথা ঠান্ডা রাখতে পারেন। তাই তার নামের সঙ্গে জুড়ে গেছে ‘ক্যাপ্টেন কুল’ পদবি।

ধোনির কি আসলেই আবেগ নেই? হুট করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরে গেছেন। এখানেও তো খুব একটা আবেগী দেখা গেল না ভারতের দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে।

আসলে মনের ব্যথা সামনে আনার মানুষ নন ধোনি। আবেগ তাকেও ছুঁয়ে যায়, কিন্তু সেটা প্রকাশ করতে চান না সহজে। কাছের মানুষেরা হয়তো আড়ালে থেকে অনেক কিছুই লক্ষ্য করেন, যেমনটা লক্ষ্য করেছিলেন ধোনির প্রিয় সতীর্থের মধ্যে একজন-রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

২০১৪ সালে ধোনি যখন টেস্ট থেকে অবসর নেন, তখনকার এক মুহূর্তের কথা শেয়ার করলেন অশ্বিন। বিশ্বকাপজয়ী সাবেক ভারতীয় অধিনায়ককে নিয়ে প্রকাশ করা এক ইউটিউব ভিডিওতে অশ্বিন জানান, ট্স্টে থেকে অবসরের সময় কতটা আবেগী দেখেছিলেন এই ধোনিকে।

অশ্বিন বলেন, ‘আমার মনে আছে, ২০১৪ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে যখন ও অবসর নিল, মেলবোর্নে আমি তখন ম্যাচ বাঁচাতে ওর সঙ্গে ব্যাটিং করছি। কিন্তু যখন আমরা হেরে গেলাম, ও একটা স্ট্যাম্প তুলে নিয়ে চলে যেতে যেতে বলল, আমি শেষ করলাম। এটা ওর জন্য আবেগঘন মুহূর্ত ছিল। ইশান্ত শর্মা, সুরেশ রায়না ও আমি ওর ঘরে সন্ধ্যায় বসেছিলাম। ও সারারাত ধরে টেস্ট ম্যাচের জার্সি পরে ছিল এবং চোখ দিয়ে অশ্রু গড়িয়ে পড়ছিল।’

বিদায় তো সবসময়ই বেদনার। খেলার মধ্যে নেই বলে ধোনির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণার ক্ষণটি কেমন কেটেছে, হয়তো সতীর্থরা দেখতে পারেননি। তবে এত বড় একটা সিদ্ধান্ত জানানোর সময় নিশ্চয়ই ভেতরে ভেতরে পুড়েছেন ধোনি। এই আবেগ তো ধরে রাখার নয়!

27 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন