১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

৯৯৬ কোটি টাকা ব্যয়ে মনু নদীর ভাঙন বাধের স্থায়ী প্রতিরক্ষামূলক কাজ অচিরেই শুরু করা হবে : সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার

আপডেট: আগস্ট ১২, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

এস আর অনি চৌধুরী :: পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার বলেছেন, খুব শীগ্রই ৯৯৬ কোটি টাকা ব্যয়ে মনু নদীর ভাঙন বাধের স্থায়ী প্রতিরক্ষামূলক কাজ, চর অপসারন-ফ্লাড ওয়াল নির্মাণ কাজ এবং ডেল্টা প্ল্যানের অংশ হিসেবে নতুন করে প্রতি উপজেলায় ৫ টি করে নতুন খাল খনন কাজ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শুরু করা হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ১০ লক্ষ বৃক্ষরোপন কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার (১২ আগস্ট) কুলাউড়া উপজেলার ফানাই নদীর তীরে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধনীতে তিনি এ কথা বলেন।

সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার আরও বলেন, অতীতের যে কোন সময় থেকে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কাজে জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আগামী প্রতিটি কাজ কেন্দ্রীয় ভাবে সিসি টিভি ক্যামেরার মাধ্যমে মনিটরিং করা হবে।

বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের উত্তর-পূর্বাঞ্চল জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী এস.এম.শহিদুল ইসলাম, মৌলভীবাজার পওর সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী প্রকাশ কৃষ্ণ সরকার, নির্বাহী প্রকৌশলী রণেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী খালিদ বিন অলীদ, মো.খোরশেদ আলম, মো. মোখলেছুর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম সফি আহমদ সলমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজরাতুন নাঈম, পৌর মেয়র শফি আলম ইউনুছ, কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান,পাউবো’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. আবদুল কাদের ও সরওয়ার আলম চৌধুরী, ব্রাহ্মণবাজার ইউপি চেয়ারম্যান মো.মমদুদ হোসেনসহ স্থানীয় এলাকার জনপ্রতিনিধি ও গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।

নির্বাহী প্রকৌশলী রণেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী জানান, বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাপাউবো মৌলভীবাজার এর মাধ্যমে বিভিন্ন উপজেলার নদীর তীরে প্রায় ২৮ হাজার বৃক্ষরোপন করা হবে।

265 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন