১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

কুলাউড়া হাসপাতালে আজ ৩০ জুন থেকে ইমার্জেন্সি ছাড়া ১ সপ্তাহ সকল চিকিৎসা কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ থাকবে

আপডেট: জুন ৩০, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেস্ক রিপোর্ট :: করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) উপসগের্র সন্দেহ নিয়ে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকালে নতুন করে আরও ১১ জনের করোনা শনাক্তের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ জুন করোনাভাইরাসের নমুনা উপসর্গের ৩২ জন রোগির নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা ল্যাবে প্রেরন করা হয়। এর মধ্যে মঙ্গলবার (৩০ জুন) ৩২ জনের মধ্যে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার-স্টাফসহ ১১ জনের নমুনা পজিটিভ এবং ২১ জনের নমুনা নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে।

কুলাউড়া হাসপাতালসুত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকাল পর্যন্ত পাওয়া ১১ জন পজিটিভ রিপোর্টের মধ্যে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার-স্টাফসহ ৮ জন, কুলাউড়া পৌরসভার বিছরাকান্দি এলাকার ১ জন, সুনাপুর এলাকার ১ জন ও আহমেদাবাদ এলাকার ১ জনসহ মোট ১১ জন।

এনিয়ে মোট ৮৯ জন আক্রান্তের মধ্যে ৫৩ জন সুস্থ্য হয়ে করোনামুক্ত হয়েছেন বলে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া আরও ৩৩ জনের রিপোর্ট অপেক্ষাধীন রয়েছে।

কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা.নুরুল হক জানান, কুলাউড়া হাসপাতালে ডাক্তার, নার্স, সেকমোসহ ৮ জন কোভিড-১৯ শনাক্ত থাকায় আজ মঙ্গলবার (৩০ জুন) থেকে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের সেবা ছাড়া অন্যান্য ধরণের চিকিৎসা সেবা ১ সপ্তারের জন্য সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। কোভিড-১৯ প্রতিরোধে জনগণের সুরক্ষার স্বার্থে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, আগামী ৬ জুলাই সোমবার থেকে হাসপাতালের জরুরী চিকিৎসা সেবাসহ সকল ধরণের চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম পুনরায় শুরু করা হবে। এরই মধ্যে হাসপাতালে জীবাণুনাশক স্প্রে করে স্বাস্থ্যবিধি উপযোগী করে তোলা হবে।

ডা. নুরুল হক আরও জানান, জনস্বার্থে মাঠ পর্যায়ের ইপিআই কার্যক্রমসহ সকল কমিউনিটি ক্লিনিক খোলা রেখে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম চালু থাকবে।

তিনি এ পরিস্থিতিতে সর্বমহলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

804 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন