২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

র‍্যাবের অভিযানে সিলেটে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামী ও বাহুবলে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আপডেট: জুন ২৫, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনি চৌধুরীঃ র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ কমান্ডিং এর পৃথক পৃথক অভিযানে গত ২৪ জুন হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল থানা এলাকা থেকে পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী এবং সিলেট থেকে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করে স্ব-স্ব থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
র‌্যাব-সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সিপিসি-২, (শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প) এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর আহমেদ নোমান জাকি এর নেতৃত্বে এএসপি সোমেন আব্দুল্লাহপুর এলাকা থেকে পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী মোঃ নুরুল আমিন ওরফে রুমন (১৮)কে গ্রেফতার করে। পরে তার হেফাজত হতে ১৬ বোতল ফে›িসডিল, মাদক বিক্রয়লব্ধ নগত ১৮০০ টাকা এবং ১ টি মোবাইল উদ্ধার করে জব্দ করা হয়। মাদক ব্যবসায়ী নুরুল আমিন হবিগঞ্জ জেলার সদর থানার শায়েস্তানগর নিবাসী মৃত আলমাস মিয়ার পুত্র। উল্লিখিত ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে আলামতসহ আসামিকে হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


অপরদিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, এর উপ-পরিচালক মেজর মোঃ শওকাতুল মোনায়েম এর নেতৃত্বে এএসপি নাহিদ হাসান ও এএসপি ওবাইন সহ সদর কোম্পানির একটি আভিযানিক দল এসএমপির এয়ারপোর্ট থানার লাক্কাতুরা চা বাগান এলাকার থেকে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী (১৯) কে গ্রেফতার করেছে। সুজন দাস সিলেট’ এসএমপির এয়ারপোর্ট থানার লাক্কাতুরা চা বাগানের চন্দ্র দাসের পুত্র। র‌্যাব জানায় তার বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানার জিআর ১০৮/১৮ ধারাঃ- নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯(১) তথা ধর্ষণ মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামি হওয়ায় তাকে গ্রেফতার করে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

183 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন