১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

কুলাউড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে নিহত সৈয়দ রফিকুল ইসলামের মৃত্যুর রিপোর্ট নেগেটিভ

আপডেট: জুন ২৩, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনি চৌধুরী :: কুলাউড়া উপজেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে সৈয়দ রফিকুল ইসলাম নামে ৭০ বছরের এক বিশিষ্ট ব্যাক্তির মৃত্যু রিপোর্ট অবশেষে করোনামুক্ত বলে শুক্রবার (১৯ জুন) রিপোর্ট পাওয়া গেছে। উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের কৌলারশি নিবাসী সৈয়দবাড়ীর সৈয়দ রফিকুল ইসলাম গত মঙ্গলবার (১৬ জুন) দুপুরে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন।
পারিবারিকসুত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে তিনি Ịদরোগসহ জটিল রোগে ভুগছিলেন। এ অবস্থায় গত সোমবার তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্বজনরা তাকে নিয়ে রাতে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে সিলেট হাসপাতালে রেফার করেন। পরে রাতেই তাকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয় ও পরদিন মঙ্গলবার (১৬ জুন) দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের দায়িত্বরত কর্মকর্তা ডা. জন্মেজয় দত্ত জানান, উক্ত ব্যক্তি গত সোমবার রাতে হাসপাতালে এসে ভর্তি হলে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছিল। এ অবস্থায় পরদিন মারা যাওয়ার ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে সিলেট ওসমানী ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। এদিকে বিকেলে মরহুমের লাশ সিলেট থেকে কুলাউড়ার তার নিজ বাড়ীতে পৌছার খবর পেয়ে কুলাউড়া থানা পুলিশ সন্ধায় ঘটনাস্থলে গিয়ে স্বজনদের দ্রুত পারিবারিকভাবে লাশ দাফন করার পরামর্শ দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।
অপরদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে মৃত্যুবরনকারী সৈয়দ রফিকুল ইসলামের স্বাস্থ্যবিধিনুযায়ী লাশ দাফনের ৩ দিন পর সিলেট ল্যাব থেকে শুক্রবার (১৯) জুন মৃত সৈয়দ রফিকুল ইসলাম এর করোনামুক্ত রিপোর্ট কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য প্রশাসনের কাছে পৌচেছে বলে মরহুমের মেয়ের জামাই তিনি সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক বিশিষ্ট সাইকিয়াট্রিস্ট ডা.সাঈদ এনাম জানান।

560 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন