৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

কুলাউড়ায় সূর্যমুখীর বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনি চৌধুরী :: সূর্যমুখী চাষ করে এলাকায় সাড়া ফেলেছেন মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের সাব্বির উদ্দিন। সূর্যমুখীর বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে এখন বিরাজ করছে রাজ্যের আনন্দ হাসি।
সূর্যমুখী ফুল চাষে আশার হলুদ ফুলের সৌরভ ছড়াচ্ছে। গাছে গাছে ফুটেছে ফুল। পুরো মাঠ হলদে ফুলে সুশোভিত। বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে সূর্যমুখী ফুলের আবাদ দেখে দূর থেকে তাকালে যে কারো মনে হতে পারে প্রকৃতি যেন হলুদ গালিচা বিছিয়ে দিয়েছে, যেখানে সাময়িক সময়ের জন্য হারিয়ে যেতে মন চায়। বিস্তৃত সূর্যমুখী বাগানের এই হলুদাভ দৃশ্যটি যেকারো মনকে আকৃষ্ট করে তুলে যা পর্যটকদের কাছে টানছে এক অমোঘ আকর্ষণে।
কুলাউড়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় বরমচাল ইউনিয়নের খাদিমপাড়া-সিংগুর গ্রামে এবার সূর্যমুখী ফুলের চাষ করে লাভবান হয়েছেন সিংগুর গ্রামের সাব্বির উদ্দিন। কৃষি অফিসের তথ্যমতে, এবছর উপজেলার বিভন্ন ইউনিয়নের ২০ বিঘা জমিতে কৃষকরা সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন। একই সাথে সূর্যমুখী চাষ করে বেশি লাভবান হয়েছেন উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের সিংগুর গ্রামের সাব্বির উদ্দিন।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হাইসান-৩৬ জাতের সূর্যমুখী ফুলের চাষ করা হয়। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে কৃষকদের বিনা মূল্যে বীজ ও সার দেয়া হয়। বরমচাল ইউনিয়নের সিংগুর গ্রামের সূর্যমুখী ফুলের চাষি সাব্বির উদ্দিন জানান, তিনি ১ বিঘা জমিতে হাইসান-৩৬ জাতের সূর্যমুখী ফুলের চাষ করে লাভবান হয়েছেন। ইতিমধ্যে প্রতিটি গাছে ফুল ধরেছে। প্রতিদিন বিকেলে শহরসহ আশপাশ এলাকা থেকে সৌন্দর্য পিয়াসুরা দল বেঁধে আসেন সূর্যমুখী ফুলের বাগান দেখতে। তিনি আশা করেন, সূর্যমুখী চাষে সফলতা আসবে।

কুলাউড়া উপজেলা কৃষি অফিসার জগলুল হায়দার জানান, ইতিপুর্বে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করা হলেও এবছর সূর্যমুখী ফুলের চাষ করে লাভবান হয়েছেন সাব্বির উদ্দিন। এ বছর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ২০ বিঘা জমিতে হাইসান-৩৬ জাতের সূর্যমুখী চাষ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, সূর্যমুখী ফুলের বীজ থেকে যে সয়াবিন তেল পাওয়া যায় তাতে কোনো ক্ষতিকর কলেস্টেরল নেই। বাজার থেকে যে সাধারণ সয়াবিন তেল কেনা হলে তাতে ক্ষতিকর কলেস্টেরল থাকে, যা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কৃষকদের স্বাবলম্বী করতে সূর্যমুখী ফুল চাষে উৎসাহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী জানান, ‘কুলাউড়ায় সূর্যমুখী চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে বিনামূল্যে সূর্যমুখীর বীজ ও সার দেয়া হয়েছে। আমার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের পক্ষ থেকে কৃষকদের সকল ধরনের পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছি। আগামীতে আরও বেশি জমিতে সূর্যমুখীর চাষ হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

1422 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন