৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

কুলাউড়ায় এমপি সুলতান মনসুর’র প্রচেষ্টায় ডাকবাংলো মাঠে “বঙ্গবন্ধু উদ্যান” সাইনবোর্ড স্থাপন

আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০১৯

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেস্ক সংবাদ ঃঃ কুলাউড়া উপজেলার পৌর শহরের ডাকবাংলো মাঠ এলাকায় এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ এর যুগান্তকারী পদক্ষেপে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে “বঙ্গবন্ধু উদ্যান” নামকরনের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে মহান বিজয়ের মাসের প্রথম প্রহরে ১লা ডিসেম্বর দৃষ্টিনন্দন “বঙ্গবন্ধু উদ্যান” ডিজিটাল সাইনবোর্ড টানিয়ে মাঠের সৌন্দর্য্য বর্ধন করা হয়েছে।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ও বিশেষ অধিকার সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য,ডাকসুর সাবেক ভিপি মৌলভীবাজার-২ আসনের এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ কুলাউড়া উপজেলা শহরের একমাত্র ডাকবাংলো মাঠকে যুগোপোযোগী করে গড়ে তোলার লক্ষে ও দীর্ঘদিন যাবৎ বৃটিশ আমলের নামকরণকৃত কুলাউড়া ডাক বাংলো প্রাঙ্গনের নাম পরিবর্তন করে বর্তমান সমযোপোযোগী নতুন নামকরণ ‘বঙ্গবন্ধু উদ্যান কুলাউড়া’ করার এক মহা-পরিকল্পনা গ্রহন করেন। কুলাউড়া পৌরসভা মিলনায়তনে গত ৯ আগষ্ট উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও কুলাউড়া প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে অনুষ্টিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি নতুন নামকরণ এর ঘোষণা প্রদান করেন।
পৌর মেয়র শফি আলম ইউনুছ এর সভাপতিত্বে ও পৌর কমিশনার ইকবাল আহমদ শামীম এর পরিচালনায় উক্ত সভায় কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সফি আহমদ সলমান,তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবুল লাইছ ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাদি উর রহিম জাদিদ,ওসি ইয়ারদৌস হাসান,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলুল হক খান সাহেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেহা ফেরদৌছ চৌধুরী (পপি),জেলা পরিষদ সদস্য মানিক আহমদ ও শিরিন চৌধুরী মুন্নি, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সাধারন সম্পাদক মোঃ খালেদ পারভেজ বখশ,কাউন্সিলর সামসূল ইসলাম, রাসেল আহমদ চৌধুরী, দিলারা বেগম, রাবেয়া বেগম, আনোয়ারা বেগম, পৌর সচিব শরদিন্দু রায়সহ কাউন্সিলারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।
“বঙ্গবন্ধু উদ্যান” নামকরনের কথা উল্লেখ করে এমপি সুলতান মনসুর উপজেলার অসমাপ্ত উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে কুলাউড়া ডাকবাংলো এলাকাকে “বঙ্গবন্ধু উদ্যান” নামকরনসহ দীর্ঘদিন ধরে শোষিত, নির্যাতিত, অবহেলিত কুলাউড়ার মানুষের জন্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সু-শাসনের পক্ষে একজন সেবক হয়ে সৃষ্টিশীল কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। তিনি অতি দ্রুত সময়ে বঙ্গবন্ধু উদ্যানসহ কুলাউড়ার উন্নয়নে একটি মহা পরিকল্পনা হাতে নিয়ে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহন, বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু উদ্যানে ১০ তলা ভবনের শেখ হাসিনা কালচারেল সেন্টার স্থাপন করে কুলাউড়া প্রেসক্লাব, ক্রীড়া সংস্থা, পাবলিক লাইব্রেরী, শিল্পকলা একাডেমী নিয়ে কয়েকতলা বিশিষ্ট কমপ্লেক্স নির্মাণ,জেলা পরিষদ ভুমিতে অত্যাধুনিক শপিং কমপ্লেক্স নির্মান,কুলাউড়া পৌরসভার প্রধান সড়ক চারলাইনে রুপান্তরিতকরণ,আধুনিক ডেনেজ ব্যবস্থা, স্টেশনরোডস্থ পুরাতন ডাকবাংলোকে কয়েকতলা বিশিষ্ঠ আধুনিককরন ও স্টেশন চৌমুহনী এলাকায় বঙ্গবন্ধু মরেলসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কাজ শুরু করে যানজটমুক্ত একটি দৃিষ্টনন্দন শহর নির্মানের আশ^াস প্রদান করেন।
সুলতান মনসুর আরো বলেন দীর্ঘমেয়াদী মহা-পরিকল্পনা বাস্তবায়ন নিয়ে ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তার সাক্ষাৎ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী পরিকল্পনার ডিজাইন দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এবং একনেকের সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহনের আশ^াস দিয়েছেন।

691 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Frank Dinar