৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

গ্রাম আদালতে জনগণের আস্থা অর্জন করলে স্থ।নীয় পর্যায়ে অনেক অপরাধ কমে যাবে–জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন

আপডেট: নভেম্বর ১২, ২০১৯

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেক্স রিপোর্টঃ মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক বেগম নাজিয়া শিরিন বলেছেন, উচ্চ আদালত হতে মামলার চাপ কমাতে, একই সঙ্গে জনগণের কাছে স্থানীয় বিচার ব্যবস্থার সুযোগ পৌছে দিতে বাংলাদেশ সরকার ২০০৬ সালে গ্রাম আদালত আইন পাশ করে, যা পরে ২০১৩ সালে সংশোধিত হয়। এ আইন ইউনিয়ন পরিষদকে ছোটখাট মামলার বিচারিক ক্ষমতা প্রদান করেছে। যার মাধ্যমে গ্রাম আদালত সক্রিয় করে গ্রামের নারী, অবহেলিত স্থানীয় জনগণ সহজে, সল্প খরচে, দ্রুত সময়ে ন্যায় বিচার পাবেন। তিনি বলেন সরকার আইনের মাধ্যমে গ্রাম আদালতকে যে বিচারিক ক্ষমতা দিয়েছে তার সঠিক প্রয়োগ করে জনগণের আস্থা অর্জন করলে স্থ’ানীয় পর্যায়ে অনেক অপরাধ কমে যাবে এবং প্রাতিষ্ঠানিক আদালতসমুহে মামলার সংখ্যা কমে আসবে।

মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসনের আয়োজনে মঙ্গলবার মৌলভীবাজার শহরস্থ রেস্ট ইন হোটেলে অনুষ্টিত ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, ইউএনডিপি ও বাংলাদেশ সরকার এর আর্থিক ও কারিগরী সহযোগিতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ও গ্রাম আদালত সহকারিদের দু’দিন ব্যাপী গ্রাম আদালত বিষয়ক রিফ্রেশার্স প্রশিক্ষণের সমাপনীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সমাপনি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার উপ-পরিচালক মোহাম্মদ রোকন উদ্দিন, ইউএনডিপি ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর মোঃ মাহাবুব উল আলম ও জেলা সমন্বয়কারী মোঃ কামাল হোসেন প্রমুখ। উক্ত প্রশিক্ষণে জেলার শ্রীমঙ্গল, কমলগঞ্জ, কুলাউড়া ও বড়লেখাসহ ৪ উপজেলার ২৪ জন ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ও গ্রাম আদালত সহকারিগণ অংশগ্রহণ করেন। সোমবার প্রশিক্ষণের উদ্ভোধন করেন মৌলভীবাজার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মোহাম্মদ রোকন উদ্দিন।

147 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Frank Dinar