৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং, শনিবার

কুলাউড়ায় মনু নদীর পানি বিপদ সীমার উপরে। বাধে বস্তা ফেলে ভাঙ্গন রক্ষার চেষ্টা

আপডেট: জুলাই ১৪, ২০১৯

ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেক্স রিপোর্টঃ কুলাউড়া উপজেলায় গত ক’দিনের অবিরাম বৃষ্টিতে গতকাল রোববার পর্যন্ত মনু নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় হাজিপুর ইউনিয়নের কঠারকোনা বাজারের হাসিমপুর এলাকার বাধ অতি ঝুকিপুর্ন হয়ে পড়ায় খবর পেয়ে গত শনিবার রাতে মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রণেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী,উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরওয়ার আলম চৌধুরী,কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সফি আহমদ সলমান ঝুকিপুর্ন হাসিমপরের বাধ পরিদর্শন করে তাৎক্ষনিকভাবে বাধ রক্ষার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেন। মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ড শনিবার রাত থেকে বস্তা ফেলে বাধ রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
রোববার সকালে কুলাউড়া ইউএনও মুহাম্মদ আবুল লাইছ ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ সাদি উর রহিম জাদিদ হাজিপুর ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ বাধের মেরামত কাজ পরিদর্শন করে সার্বিকভাবে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানান। ইউএনও কাউকে আতংকিত না হওয়ার অনুরোধ জানান।
মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরওয়ার আলম চৌধুরী জানান এক শ্রেনীর অসাধু বালু ব্যবসায়ী মনু রেল ব্রীজ ও কঠারকোনা ব্রীজের পার্শ্ব থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারনে মনু নদীর বাধ ঝুকিপুর্ন হয়েছে। তিনি জানান বৃষ্টি শুরুর পর থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ড মনু নদীর ঝুকিপুর্ন বাধ রক্ষায় সতর্কতাবস্থায় রয়েছে।

440 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন