আগস্ট ৪, ২০১৫ ১১:০৯ অপরাহ্ণ

সিলেটে ৮ম শ্রেণী পাস টেকনিশিয়ান দিয়ে মেডিকেল পরীক্ষা: আদালতের জরিমানা


কুলাউড়া সংবাদ, মঙ্গলবার,৪ আগস্ট ২০১৫ ::

সিলেট নগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে পরিচালিত এক অভিযানে নগরীর রিকাবীবাজার এলাকার জালালাবাদ প্যাথলজিতে গিয়ে আদালতের চোখে ধরা পড়ে ভয়ঙ্কর চিত্র। আদালত প্রতিষ্ঠানটিকে নগদ অর্থ জরিমানা করেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিভিন্ন রোগী তাদের ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এই প্রতিষ্ঠানটিতে আসছেন তাদের রোগের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানোর জন্য। এসব পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য স্বাভাবিকভাবে বিশেষজ্ঞ প্যাথলজিস্ট দায়িত্ব পালন করার কথা। ওই প্যাথলজিস্টের রিপোর্ট আবার অভিজ্ঞ ডাক্তার কর্তৃক পরীক্ষিত হওয়ার কথা। কিন্তু জালালাবাদ প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে দেখা যায় উল্টো চিত্র। বিশেষজ্ঞ প্যাথলজিস্টের জায়গায় কাজ করছেন মাত্র ৮ম শ্রেণী পাস এক ব্যক্তি। তিনিই পরীক্ষা করে প্রদান করেন বিভিন্ন রোগীর মূল্যবান রিপোর্ট। যার দ্বারা পরবর্তীতে রোগীর চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। অভিযানকালে আদালতের কাছে হাতে নাতে ধরা পড়ে ব্যাপারটি। এসময় আদালত প্রতিষ্ঠানটির উপর মামলা করেন। মামলার প্রেক্ষিতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটিকে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন অফিসের জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর স্নিগ্ধেন্দু সরকার, ম্যাজিস্ট্রেট  মামুনুর রহমান ও বিএসটিআই কর্মকর্তা রাজীব দাশ গুপ্ত।

আদালত পরিচালনাকারি ম্যাজিস্ট্রেট মামনুর রহমান  বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত সর্বদা জনগণের পাশে আছে। এরকম অভিযান নিয়মিতভাবেই পরিচালিত হবে। তিনি বলেন সিলেটের যেকোনো স্থানে এরকম অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্টদের অবহিত করুন। এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা চালানো হবে ও অভিযান পরিচালিত হবে।


error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ