আগস্ট ২১, ২০১৫ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ

পানির সাথে গ্যাস খাচ্ছেন সিলেট নগরবাসী


সিলেট, শুক্রবার, ২১ আগস্ট ২০১৫ :: সিলেটে পাইপ লাইন ছিদ্র হয়ে একাকার হয়ে গেছে গ্যাস ও পানি। গ্যাসের মিশ্রনে পানের অযোগ্য হয়ে পড়েছে সিটি করপোরেশনের খাবার পানি। খাবার পানি থেকে বের হচ্ছে গ্যাসের গন্ধ। কয়েক দিন পর পর বিভিন্ন স্থানে মাটির নিচ থেকে বের হয়ে আসছে গ্যাসের আগুন। গত তিনমাস ধরে প্রায়ই এরকম ঘটনা ঘটছে। মাটির নিচে গ্যাস ও পানির লাইন একই জায়গায় ছিদ্র বা ভেঙে যাওয়ায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে দাবি করছেন জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এই সমস্যা সমাধানে কাজ চলছে বলে জানান জালালাবাদ গ্যাসের মহাব্যবস্থাপক সোয়েব মতিন।

জানা যায়- প্রায় তিনমাস ধরে নগরীর আম্বরখানা, ইলেকট্রিক সাপ্লাই, লোহারপাড়া, আম্বরখানা, চন্দনটুলা ও দরগাগেইট এলাকায় সিটি করপোরেশনের সরবরাহকৃত পানিতে গ্যাসের গন্ধ পাচ্ছেন লোকজন। গন্ধ ও তৈলাক্তভাবের কারণে অনেকেই সিটি করপোরেশনের পানি পান বন্ধ করে দেন। সিটি করপোরেশনের সাথে যোগাযোগ করেও তারা এর কোন সমাধান দিতে পারেননি।

এর মধ্যে গত জুন মাসে বৃষ্টির সময় ইলেকট্রিক সাপ্লাই রোডে ড্রেনের পানিতে আগুন ধরে গেলে গ্যাস লাইন লিকেজ হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। ইলেকট্রিক সাপ্লাই রোড ছাড়াও আম্বরখানা, লোহারপাড়ায় পাইপ লাইন ছিদ্র হয়ে গ্যাস পানিতে ছড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি আগুনও ধরে যায়।

সর্বশেষ গত ২ আগস্ট দরগাগেইট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিপরীতে রাস্তার পাশে মাটির নিচ থেকে আগুন বেরুতে থাকলে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে ফায়ার ব্রিগেড এসে গ্যাস লাইন ছিদ্র হয়ে বের হওয়া আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পাইপ লাইন ছিদ্র হয়ে গ্যাস ও পানি একাকার হয়ে পড়ায় এভাবে প্রায়ই ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটছে।

সিলেট নগরীর আম্বরখানা সোনালী ব্যাংক কলোনির বাসিন্দা ইফতেখার হোসেন জানান- পানির সাথে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ায় তা পানের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। গ্যাসের দুর্গন্ধের কারণে তিনি দুমাস ধরে ডিপ টিউবওয়েলের পানি ব্যবহার করছেন।

জালালাবাদ গ্যাসের মহাব্যবস্থাপক সোয়েব মতিন জানান- মাটির নিচে গ্যাস ও পানির লাইন পাশাপাশি বসানো। কোথাও একই স্থানে দুই পাইপ লাইন ছিদ্র হয়ে এক হয়ে গেছে। তাই পানিতে গ্যাস ছড়িয়ে পড়েছে। সমস্যা সমাধানে ইলেকট্রিক সাপ্লাইরোডে সাবেক স্পিকার হুমায়ূন রশীদের ভাই আমিনুর রশীদ চৌধুরীর বাসার সামনে ৩০০ ফুট পাইপ লাইন নতুন করে বসানো হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

163 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ