জানুয়ারি ২১, ২০১৬ ১:১৭ পূর্বাহ্ণ

তীব্র শীতে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ


শাহ আহমদ সাজ : শীতের তীব্র হিংসা এবং আমাদের গরমের সাথে আলিঙ্গন, এযেন শীতকালে একটু বেশী সতর্কথা ! শীত আসলেই ইউরোপ , আমেরিকাসহ আরেকটি অপরূপ দৃশ্য তুষারপাত ৷ কনকনে ঠান্ডার মাঝেও থেমে নেই যান্ত্রিক জীবন ৷ যেখানে মাইনাস ডিগ্রীতে নেমে আসে তাপমাত্রা ! উন্নত বিশ্বে আমরা ঘরে , বাহিরে , অফিসে তীব্র এই শীত থেকে নিজেদের রক্ষা করার জন্য আমরা অনেক দামি পোশাক , স্কার্ফ , হ্যাট পরিধান করি তারপরও শীত যেন আমাদের পিছু না হটে ৷ প্রবাসে আসার পর বছরের শীত মৌসুমটাকে সবাই একটু কদর করেন আর অপেক্ষায় থাকেন গরম ( উষ্ণ ) মৌসুমটার জন্য ৷ এবার প্রবাস থেকে দেশে …. আমাদের বাংলাদেশে সব অঞ্চলে খুব বেশি ঠান্ডার প্রবণতা থাকলেও বিগত কয়েক বছর ধরে শীত , কুয়াশা এবং তাপমাত্রা কমে যাওয়া বেশ, লক্ষনীয় ৷ বাংলাদেশর উত্তরাঞ্চলে শীতের সাথে কুয়াশার তীব্রতা একটু বেশী ৷ আল্লাহর কাছে অশেষ ধন্যবাদ তুষারপাত দেননি ৷ দেশের শীতকাল এবং আমেরিকার শীতের তাপমাত্রা পুরোটাই ভিন্ন , এজন্য সর্বদা আমাকে একটি জিনিস ভাবে এখানে আমরা উন্নত বিশ্বে আছি যখন চাচ্ছি নিজেকে সুরক্ষার জন্য সবকিছু করছি তারপর ঠান্ডা নামক শব্দটি যেন ‘ অধরা ‘ ৷ ঘরে অফিসে হিটার , ঘরে যখন কম্বল মুড়িয়ে থাকি তখনও ঠান্ডা লেগেই থাকে আরে যারা দেশে রাস্তায় শুয়ে রাত কাটায় , যাদের শীতে একটুকু মাথা রাখবার আশ্রয় নেই , যারা এই কনকনে শীতে খালি , ছেড়া কাপড় পরেও বাচার জন্য যুদ্ধ করছে তাদের এই কষ্ট এবং দারিদ্রের অসহায়ত্ব জীবন দেখলে নিজের চোখের পানি ধরে রাখতে পারি না ৷ দরিদ্রতা অভিশাপ নয় ! একবার হলেও যদি আমরা চিন্তা করি আজ এই দরিদ্রতার মাঝে আমিও থাকতে পারতাম তাহলে আপনার ক্ষুদ্র এই চিন্তায় ভালো থাকতে পারে একটি শিশু , একজন ভাই,একজন বোন , একজন মা , একজন বাবা অথবা একটি পরিবার ৷ জানি ১৭-১৮ কোটি মানুষের দেশে এই কাজটি একার পক্ষে সম্ভব নয় ,তবুও অল্প হলেও আপনার আমার সহযোগিতায় সম্ভব এই কাজটিকে ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন করা ৷

 

নিউজটি শেয়ার করুন

1173 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ