আগস্ট ২৬, ২০১৫ ১১:১৪ অপরাহ্ণ

কমলগঞ্জে প্রেমিকার বাড়িতে নৃশংসভাবে প্রেমিক খুন: রায় বৃহস্পতিবার


কুলাউড়া সংবাদ, বুধবার, ২৬ আগস্ট ২০১৫ ॥

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের পতনউষার ইউনিয়নের গোপীনগর গ্রামের আলোচিত মুদি ব্যবসায়ী আবদুল মজিদ হত্যা মামলায় রায়ের দিন ধার্য করা হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে এ রায় ঘোষণা হওয়ার কথা রয়েছে। এ তথ্য জানিয়েছেন সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট কিশোর কুমার কর।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, প্রতিবেশি আজাদুর রহমানের মেয়ে আমেনা আক্তার জুঁই এর সাথে প্রেম ছিলো আবদুল মজিদের। প্রেমটি আসামি আজাদুর রহমান মেনে নিতে না পারায়, ২০১২ সালের ২৯ আগষ্ট রাতে মেয়ের দুই ভাই আসামি রুবেল (২৪) ও আসামি জুয়েল (২৩) রাতে আবদুল মজিদকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে প্রেমিকা জুঁইয়ের বাড়িতে। রাতে খাওয়ানোর পর মজিদের হাত পা বেধে গাড় ভেঙ্গে, কান কেটে, কানে শিক ডুকিয়ে চোখ দুটি তুলে ফেলে এবং পুরুষাঙ্গ কেটে শরিরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে নৃশংসভাবে খুন করার পর লাশ একটি ডোবায় ফেলে রাখে। পরদিন পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। প্রতিবাদি হয়ে উঠেন ব্যবসায়ীসহ এলাকার মানুষ।

এ ঘটনায় ওই বছরের ১ সেপ্টেম্বর নিহত ব্যক্তির বাবা আব্দুর রহমান চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে কমলগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন।

বছর খানেক সরেজমিন তদন্ত চলে। পাশাপাশি ময়না তদন্ত ও আসামীদের ডিএনএ পরীক্ষা শেষে প্রতিবেদন পেয়ে ২০১৩ সালের ১৩ আগষ্ট ১১ জনকে আসামী করে চার্জ গঠন করা হয়। পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের মাধ্যমে ১৪ আগষ্ট চার্জশিটটি মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালত মৌলভীবাজারে জমা করা হয়। এরপর মামলাটি সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুানালে স্থানান্তর করা হয়। আর চাঞ্চচ্যলকর ঐ মামলার রায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার হওয়ার কথা রয়েছে।

নিহত আবদুল মজিদের মামা আব্দুর রব জানান, মামলাটি সিলেট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুানালে বিচারাধীন রয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার ওই মামলার রায় ঘোষণা করার হবে। তিনি আসামীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

294 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ