মে ৮, ২০১৬ ৯:৪২ অপরাহ্ণ

সিলেটে ‘ঘুম হারাম’ করা ডাকাতদলের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার,


কুলাউড়া সংবাদ :: সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ। দেশের বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। রবিবার বেলা ১২ টায় সিলেটের কোতোয়ালি মডেল থানায় সাংবাদিক সম্মেলন করে ডাকাত গ্রেপ্তারের কথা জানায় পুলিশ।

গত কয়েকদিন ধরেই সিলেটজুড়ে ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। ডাকাত প্রতিরোধে রাত জেগে পাহারা দিতে হচ্ছে নগরবাসীকে। নগরীতে ঘন ঘন ডাকাতির ঘটনাও ঘটে চলছে। এ অবস্থায় ৬ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছেন, নগরীর সুরমা আবাসিক এলাকায় এক চিকিৎসক ও যতরপুরে এক আইনজীবীর বাসাসহ কয়েকটি বাসায় ডাকাতির ঘটনা স্বীকার করেছে আটককৃতরা। গ্রেপ্তারকৃতরা গ্রিল কাটতে বিশেষ পারদর্শী বলেও জানায় পুলিশ। ঢাকায় ফ্ল্যাট ভাড়া এরা থাকে। ডাকাতির আগে টার্গেটকৃত বাসা রেকি করে তারা হানা দেয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- সিলেটের মোগলাবাজার থানার মোহাম্মদপুর (মজিদপুর) গ্রামের মৃত চিনা মিয়ার ছেলে লোকমান হোসেন(২২), ফিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া থানার আতরখালি গ্রামের মৃত ইউনুস শেখের পুত্র রাজু শেখ (২৩),খুলনা জেলার খানজাহান আলী থানার মৃত ইনসান শেখের পুত্র মো.আসলাম শেখ (২৬),খুলনার সোনাডাঙ্গা থানার আল আমিন মহল্লার বাসিন্দা বাচ্ছুর সর্দারের পুত্র মাসুম সর্দার (২৫), বাগেরহাট সদর থানার পাঠুরপাড়া গ্রামের জুবেদ আলী শেখের পুত্র রানা শেখ (২৫), খুলনার খানজাহান আলী থানার শিরামণি বাদামতলার বাসিন্দা ইসলাম হোসেনের পুত্র বাবু হোসেন (২৬)।

গত ২১ এপ্রিল নগরীর সুরমা আবাসিক এলাকায় গাইনী বিভাগের অধ্যাপক ডা. শাহানা ফেরদৌস চৌধুরীর বাসায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডা শাহানা তাঁর বাসায় ডাকাতির সাথে গ্রেফতারকৃতরা সংশ্লিষ্ট ছিলো বলে সনাক্ত করেছেন, এমনটিই জানিয়েছে পুলিশ।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (গণমাধ্যম) রহমতউল্লাহ জানান, ডাকাতদের ধরতে সিলেট মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে দুই সহকারী পুলিশ কমিশনারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম গঠন করা হয়। ওই টিম অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেফতার করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

1672 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ