মে ৩১, ২০১৬ ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

বিয়ের নাটক সাজিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, র‌্যাবের হাতে আটক ৩


কুলাউড়া সংবাদ :: বিয়ের নামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ভুয়া বর ও তার সহযোগী দুই নারীকে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার বিকেলে সিলেট শহরতলীর ইসলামপুর মেজরটিলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পরে আটককৃতদের থানায় সোপর্দ করে র‌্যাব।

আটককৃতরা হলেন- কথিত বর মামুন, তার সহযোগী মোছা. নূরুন্নাহার ও মোছা. রহিমা বেগম ।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়- নির্যাতিত কিশোরী (১৫) প্রায় দুই বছর আগে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার থেকে জীবিকার প্রয়োজনে গৃহকর্মী হিসেবে সিলেটে কাজ করতে আসে। ইসলামপুরে এক বাসায় কাজ করার সময় নুরুন্নাহারের তার পরিচয় হয়। পরবর্তীতে তার সাথেই কলোনিতে গত ৩/৪ মাস ধরে ভাড়া ঘরে বসবাস করছিল। মামুন সেখানে কিশোরীকে দেখতে পেয়ে রহিমা বেগম ও নুরুন্নাহারের সহযোগিতায় বিয়ের সাজানো নাটক করে। কোন ধর্মীয় ও সামাজিক অনুশাসন না মেনে অপ্রাপ্তবয়স্ক কিশোরীকে তার সম্মতির বিরুদ্ধে মামুনের সাথে সাজানো বিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনার সময় একজন ভুয়া মৌলভী উপস্থিত ছিলেন। ঘটনার পর দুইদিন মামুন ও ওই কিশোরীকে কলোনির একই ঘরে থাকতে বাধ্য করে কথিত খালা নুরুন্নাহার ও রহিমা বেগম । ২৯ মে রাতে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

গোপন সংবাদ পেয়ে মেজর এস এ এম ফখরুল ইসলাম খানের র‌্যাবের একটি দল কিশোরীকে উদ্ধার করে এবং কথিত দুই খালাকে ঘটনাস্থল হতে আটক করে। র‌্যাবের গোয়েন্দা দল জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে পলাতক ভুয়া বর মামুনকেও পরবর্তীতে আটক করে।

উদ্ধারকৃত কিশোরীকে পুলিশ হেফাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভুয়া মৌলভী বর্তমানে পলাতক রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। আটককৃতদের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে সিলেট জেলার শাহপরান থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

301 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ