নভেম্বর ২৬, ২০১৫ ৬:৪৮ অপরাহ্ণ

পাকিস্তানি পতাকা ও সিলেটের ডাকে আগুন দিয়ে সিলেটবাসীর প্রতিবাদ


যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রসঙ্গে পাকিস্তানের ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য প্রত্যাহার ও জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধের দাবিতে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ‘স্বাধীনতা চেতনা মঞ্চ’ নামের একটি সংগঠন মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধনে রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ নেয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মানববন্ধন শেষে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে পাকিস্তানের পতাকা ও ‘দৈনিক সিলেটের ডাক’ পত্রিকা পুড়িয়ে তারা প্রতিবাদ জানায়।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, জাসত নেতা জাকির হোসেন, সিলেট প্রেসক্লাব ফাউন্ডেশনের সভাপতি আল আজাদ, আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, আব্দুর রহমান জামিল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাশু দাস মিঠু, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম তুষার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সামছুল আলম সেলিম, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ রজত কান্তি গুপ্ত প্রমুখ।

মানববন্ধনে কামরান বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেশে রাজনীতি করতে হলে জামায়াত-শিবিরকে ছেড়ে রাজনীতি করতে হবে। অন্যথায় খালেদাকে এই দেশ ছেড়ে পাকিস্তানে যেতে হবে।’

কামরান আরো বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হচ্ছে। বর্তমান সরকারের আমলেই সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্ন করা হবে।’


error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ