ডিসেম্বর ৬, ২০১৫ ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

অবশেষে সিলেট ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন


অবশেষে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণার প্রায় ১৫ মাস পর পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেল। কমিটি অনুমোদনের বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ।

তিনি জানান, শুক্রবার রাতে ১৪১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ ঘটেছে জানিয়ে সামাদ বলেন, ‘শহরভিত্তিক কমিটি না করে উপজেলা পর্যায়ের ত্যাগী, প্রকৃত ছাত্রদের মূল্যায়ন করা হয়েছে। কমিটিতে হত্যা মামলার কোনো আসামি, সাংবাদিক নির্যাতনকারী, ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে ছিনতাইয়ে জড়িত থাকা এবং সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা কাউকে রাখা হয়নি।’

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, অনুমোদিত কমিটিতে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ছাড়া সহ-সভাপতি আছেন ১৯ জন, যুগ্ম-সম্পাদক ৫ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক ৭ জন, বিভিন্ন সম্পাদকীয় পদে ২৩ জন, উপ-সম্পাদকীয় পদে ২৩ জন, সহ-সম্পাদক ১৫ জন এবং সদস্য আছেন ৪৫ জন।

গতবছরের ৮ সেপ্টেম্বর ১০ সদস্য বিশিষ্ট যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল, সেই কমিটির দুই যুগ্ম- সম্পাদক কামরুল ইসলাম ও সঞ্জয় কুমার বহিষ্কৃত হওয়ায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন। তাদের পরিবর্তে অন্য দুজনকে যুগ্ম-সম্পাদক পদে আনা হয়েছে।

এদিকে, পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ত্যাগী, প্রকৃত ছাত্র এবং বিশেষ করে জামায়াত-শিবিরের হাতে নির্যাতিতদের গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

তাদের মধ্যে যুগ্ম-সম্পাদক পদে আছেন সিলেট সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের নেতা অসীম কান্তি ধর। এছাড়া এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে শিবিরের হাতে নির্যাতিত মেহেদি হাসান উজ্জ্বল ও গোলাপগঞ্জ ছাত্রলীগের নেতা মিজানুর রহমান সম্পাদকীয় পদ পেয়েছেন।

এদিকে, ছাত্রলীগের বর্তমান গঠণতন্ত্র অনুযায়ী কমিটি ১২১ সদস্য বিশিষ্ট হওয়ার কথা থাকলেও তা ১৪১ সদস্যে গিয়ে ঠেকেছে।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরী  বলেন, ‘ছাত্রলীগের আগামী বর্ধিত সভায় গঠণতন্ত্র সংশোধন করে ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হবে। বর্ধিত সভায় ওই সিদ্ধান্ত গৃহিত হলে জেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে বর্তমান ১৪১ সদস্যের সঙ্গে আরো ১০ সদস্য অন্তর্ভুক্ত করা হবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

1697 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ