ডিসেম্বর ১০, ২০১৬ ৪:৪৫ অপরাহ্ণ

সর্বদা সজাগ ও প্রস্তুত থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার পবিত্র দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি দেশ সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের ভাটিয়ারীতে ৭৩তম বিএমএ লং কোর্স ও ৪৩তম বিএমএ স্পেশাল কোর্সের ক্যাডেটদের কমিশন প্রদান উপলক্ষ্যে প্রেসিডেন্ট প্যারেডে ভাষণকালে এ আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, দায়িত্বপালনে সব সময় সজাগ থেকে নিজেদের দেশ সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে। সেনাবাহিনীর প্রধান ও অগ্রগন্য ব্রত হচ্ছে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা।

প্রধানমন্ত্রী নতুন ক্যাডেটদের বলেন, আপনারা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বৃহৎ কর্মজীবনে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন। আপনাদের উপর ন্যাস্ত হতে যাচ্ছে দেশ মাতৃকার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার পবিত্র দায়িত্ব। এ দায়িত্ব পালনে আপনাদের সর্বদা সজাগ ও প্রস্তুত থাকতে হবে। শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করাই হবে আপনাদের জীবনের একমাত্র ব্রত।

নতুন কমিশনপ্রাপ্ত অফিসারদের অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী সর্বোচ্চ নিষ্ঠা ও পেশাগত সততা অক্ষুন্ন রেখে দেশ ও জনগণের সেবায় ব্রতী হতে তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে সৃষ্ট বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জাতির জন্য এক গর্ব ও অহংকারের প্রতিষ্ঠান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রদর্শিত পথ অনুসরণ করে সেনাবাহিনী আজ দেশে-বিদেশে সুনাম ও মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে।

মন্ত্রীবর্গ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, জ্যেষ্ঠ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, কূটনীতিক ও নতুন কমিশনপ্রাপ্ত ক্যাটেডদের অভিভাবকগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছালে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মুহাম্মাদ শফিউল হক, বিএমএ কমান্ড্যান্ড মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর কবির তালুকদার এবং ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এম শফিকুর রহমান তাকে স্বাগত জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

196 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ