ডিসেম্বর ২০, ২০১৫ ১১:৩১ অপরাহ্ণ

মিস ওয়ার্ল্ড’ খেতাব জিতলেন স্প্যানিশ সুন্দরী


সারা বিশ্বের ১১৪ প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে দীর্ঘ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় জিতেছেন স্পেনের সুন্দরী মিরেইয়া লালাগুনা রোয়ো। দক্ষিণ চীনের সানইয়া দ্বীপে অনুষ্ঠিত এ বছরের প্রতিযোগিতা ওণূশ্তহীট হোয়।

এর মধ্য দিয়ে মিরেইয়া হয়ে উঠলেন মিস ওয়ার্ল্ড খেতাব জয়ী প্রথম স্প্যানিশ প্রতিযোগী।

প্রতিযোগিতায় রানার আপ হয়েছেন রুশ প্রতিযোগী সোফিয়া নিকিতচাক এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করেছেন ইন্দোনেশিয়ার মারিয়া হারফানতি। গত বছরের মিস ওয়ার্ল্ড জোলিন স্ট্রাউস গ্র্যান্ড ফাইনাল পর্বে বিজয়ী এবং রানার আপদের মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন।

প্রতিযোগীদের প্রত্যেকেই অনেকগুলো স্থানীয় ও আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করে তবেই আন্তর্জাতিক পরিসরের এই প্রতিযোগিতায় নিজ দেশের প্রতিনিধি হিসেবে অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছেন।

সুন্দরীদের ভীড়ে আলোয় আলোয় ভরে ওঠে মূল প্রতিযোগিতার মঞ্চ।

বিজয়ী ২৩ বছর বয়সী মিরেইয়া লালাগুনা বার্সেলোনার অধিবাসী। ফার্মাকোলজিতে ডিগ্রি নেয়ার পর এবার তিনি পুষ্টিবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেয়ার পরিকল্পনা করছেন। মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার টপ মডেল পর্বেও তিনি জয়লাভ করেন এবং বক্তব্য দেয়ার দক্ষতায় মুগ্ধ করেন বিচারকদের।

কানাডার মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগীকে চীন সরকার প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে না দেয়ায় শুরু হওয়ার বহু আগে থেকেই ব্যাপক আলোচনা আর বিতর্কের জন্ম দিয়েছে এ বছরের প্রতিযোগিতাটি। চীনের বংশোদ্ভূত মিস কানাডা অ্যানাস্টেশিয়া লিন চীনের ধর্মীয় নীতি নিয়ে সমালোচনা করায় এবং চীনে নিষিদ্ধ ঘোষিত ফালুন গং ধর্মবিশ্বাসের অনুসারী হওয়ায় তাকে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য চীনের ভিসা দেয়া হয়নি।

দ্বিতীয়বারের মতো এ বছর মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাইরের কোনো বিষয় নিয়ে সমস্যার সৃষ্টি হলো। গত বছর লন্ডনে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার কয়েক মাস আগেই মিস হন্ডুরাস ও তার বোন নিহত হওয়ায় প্রতিযোগিতাটি বেশ আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

281 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ