ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৭ ৯:০০ অপরাহ্ণ

বড় পর্দায় সাফল্য খরায় আরিফিন শুভ!


ছিলেন র‌্যাম্প মডেল। তারপর অভিনয় করেছেন নাটক-টেলিফিল্মে। এরপর খিজির হায়াত খানের ‘জাগো’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে পা রাখেন চলচ্চিত্রে। প্রথম ছবিতে শুভ সাফল্য না পেয়ে পরবর্তীতে আবারও নাটকে ফিরে যান। বলছি চিত্রনায়ক আরিফিন শুভর কথা।

কয়েক বছর পর নিজেকে নতুনভাবে তৈরি করেছেন বলে আবারও ফেরেন চলচ্চিত্রে। এবারের ক্যাপ্টেন জনপ্রিয় নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস। ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’ নামের ছবিটিতে শুভ আইরিনের বিপরীতে অভিনয় করেন। গান, নির্মাণ, গল্প দিয়ে ছবিটি আলোচিত হলেও নায়ক হিসেবে শুভর দুর্বল উপস্থিতি ছিল যথেষ্ট বিরক্তির কারণ।

সুদর্শন চেহারা, লম্বা শরীরে আকর্ষণীয় ফিগার দিয়ে শুভ অনেক পরিচালকেরই বাজির তাস হয়েছেন এরপরও। মুক্তি পেয়েছে ‘ওয়ার্নিং’, ‘অগ্নি’, ‘মুসাফির’, ‘ছুঁয়ে দিলে মন’, ‘অস্তিত্ব’, ‘নিয়তি’ নামের ছবিগুলো। এর মধ্যে ব্যবসায়িকভাবে একমাত্র সফল ছবি ‘অগ্নি’র সব প্রশংসা জমা পড়েছে নায়িকা মাহিয়া মাহির ঝুলিতে। ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ ও ‘মুসাফির’ ছবি দুটি আলোচনায় এসেছে গল্প ও নির্মাণের মুন্সিয়ানায়। শুভ থেকে গেলেন আড়ালেই। আর বাকি ছবিগুলো মুখ থুবড়ে পড়েছে বক্স অফিসে। শুধু তাই নয়, জাকির হোসেন রাজুর মতো পরিচালকও এ নায়ককে নিয়ে সফল হতে পারেননি।

যখনই কোনো পরিচালক শুভকে নিয়ে বাজি ধরেছেন, হেরেছেন। পাশাপাশি অতি তারকাসুলভ আচরণের কারণেও প্রযোজক-পরিচালকদের কাছে কমেছে তার গ্রহণযোগ্যতা। শুভ এ বিষয়টা বুঝতে পেরেই নাম লেখালেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার ঘরে। জাজের হয়ে তিনি হয়েছেন আরো বেশি ব্যর্থ। এই প্রতিষ্ঠানের হয়ে জলির বিপরীতে তার ‘নিয়তি’ ছবির ভরাডুবি হয়েছে। আর যৌথ প্রযোজনার নামে জাজের বিতর্কিত ছবি নির্মাণের প্রতি বিমুখ দেশীয় ইন্ডাস্ট্রির শিল্পী-নির্মতা ও কলাকুশলীরা। উল্টো এ আয়োজনের নায়ক হয়ে রোষের মুখে পড়েছেন শুভ। দেশীয় নির্মাতারা তাকে এড়িয়ে চলছেন।

অনেক আশা-প্রত্যাশা তৈরি করেও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছেন না শুভ। বারবার নিজেকে প্রমাণ করতে গিয়ে দুমড়ে-মুচড়ে গেছেন।

সেই ধারাবাহিকতা নিয়েই আবারো দর্শকের সামনে আসতে যাচ্ছেন শুভ। এবারও বড় ব্যানার জাজ মাল্টিমিডিয়া। বড় পরিচালক জাকির হোসেন রাজু। প্লাস পয়েন্ট হলো নায়িকা এবার আগের চেয়ে বড়। জলির জায়গায় এসেছেন গ্ল্যামারাস নুসরাত ফারিয়া। অনেকেই ভাবছেন এই ছবিটা টার্নিং পয়েন্ট হতে পারে শুভর জন্য। আবার অনেকে বলছেন, নির্মাণের মুন্সিয়ানা থাকলেও একটি নকল গল্পের ছবি দিয়ে নিজেকে কতটা সফল করতে পারবেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, শুভ-ফারিয়ার ‘প্রেমী ও প্রেমী’ ছবিটি হলিউডের ‘লিপ ইয়ার’ ছবির গল্পের নকল।

পাশাপাশি শুভর দুর্বল অভিনয়, অপরিপক্ব নাচ, বিরক্তিকর এক্সপ্রেশন তো আছেই। কেবল জাকির হোসেন রাজুর নামে ‘নিয়তি’ ছবিতে উথরে যেতে পারেননি শুভ। তবে ‘প্রেমী ও প্রেমী’ ছবিতে কী করে পারবেন? উত্তর জানা নেই। অপেক্ষা করতে হবে আগামী সপ্তাহ অবধি। ফারিয়ার বিপরীতে এ ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে ১০ ফেব্রুয়ারি।

সমালোচকদের মতে, নায়ক হওয়ার সব উপকরণ সমৃদ্ধ হলেও শুভ বারবার ফ্লপ হয়েছেন। এ অবস্থার উত্তরণ না হলে তাকে আবার নাটকে ফিরে যাওয়া ছাড়া কোনো পথ থাকবে না।

তবে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি নিয়ে আশাবাদী শুভ। তিনি বলেন, ‘এই ছবিটিতে আমি হাজির হচ্ছি চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্রে। মৌলিক গল্পের ছবিটির নির্মাণেও থাকছে মুন্সিয়ানা। এটি ঢাকাই ছবির ইতিহাসে নতুন মাইলফলক হবে বলে আমি প্রত্যাশী।’

দীপঙ্কর দীপনের পরিচালনায় ছবিটিতে শুভকে দেখা যাবে মাহির বিপরীতে। এছাড়া তার অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ছবির মধ্যে রয়েছে ‘মৃত্যুপুরী’। আর শুটিং চলছে জাজ-এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনার ‘ধ্যাততেরিকি’ নামের ছবিটির।

নিউজটি শেয়ার করুন

319 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ