জুলাই ২৬, ২০১৫ ৪:২৫ অপরাহ্ণ

বেঁচে থাকুক তিশার মতো অভিনেত্রী


আজ হঠাৎ সকাল সকাল ঘুম ভাঙল ব্যথা আর জ্বর জ্বর একটা ভাব নিয়ে। এরপর ভাবলাম গরম পানি খাই আর টিভি দেখি। হঠাৎ বৈশাখী টেলিভিশনের একটা নাটকে চোখ পড়ল, দেখলাম তিশা আর মাজনুন মিজান ভাই, তিশা ইট ভাঙার কাজ করে এতো সুন্দর করে কথা বলছে মনে হচ্ছিল আসলেই ও এই কাজটা রোজই করে। এতো সুন্দর অভিনয়, কথা- সবকিছু পরিমিত, না আছে কোন অতিরিক্ত অভিনয়, না আছে উনিশ-বিশ!

আমি মুগ্ধ হয়ে তিশার অভিনয় দেখছিলাম। একবারও ইচ্ছে হয়নি রিমোটটা হাতে নেওয়ার। শুরু করলাম দেখা ‘শেফালি’ নামের নাটকটা। ভিকারুননেসা কলেজে যখন আমরা এক সঙ্গে পড়তাম তখন তার সৌন্দর্য আমাকে মুগ্ধ করত, তা কোন দিন বলা হয়নি। প্রতি বছর যখন ও মেরিল প্রথম আলোর মতো দেশ সেরা অ্যাওয়ার্ড শোতে সেরা অভিনেত্রী সম্মাননা পেত, আমি ভাবতাম কি আছে ওর মধ্যে? কিন্তু আজ আমি এ প্রশ্নের উত্তর পেয়েছি। এ নাটকে তিশার মত এতো অদ্ভুত সুন্দর অভিনয় হয়তো এ নাটকে আর কেউ করতে পারত না। শেফালির অভিনয় আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেছে। খুব খেয়াল করে নাটকের পরিচালকের নামটা দেখলাম সুমন আনোয়ার।

তিনি খুব যত্ন নিয়ে কাজটা করেছেন। আমি একজন সাধারন দর্শক হয়ে নাটকটা দেখলাম। মিডিয়ার কেউ হয়ে না, সেই ছোটবেলার ক্লাসমেট তিশাকে জানতে চাই, তুমি তোমার সেরা অভিনয় দিয়ে তোমার স্থানটা ধরে রাখবে। ‘শেফালি’ জানিনা কার কেমন লাগবে কিন্তু আমি মনে রাখবো অনেক দিন। যুগ যুগ ধরে বেঁচে থাকুক শেফালির আদর্শ। বেঁচে থাকুক তিশার মতো অভিনেত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন

277 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ