জুন ১৮, ২০১৫ ৬:৩০ পূর্বাহ্ণ

বাড়ছে ভারতীয় শিল্পীদের আনাগোনা


কুলাউড়া সংবাদ ডট কম ।

ঢাকায় আসছেন অমুক, ঢাকায় আসছেন তমুক। এমন সংবাদ পড়তে পড়তে অনেক সচেতন পাঠক ত্যাক্ত বিরক্ত হলেও, অনেকেই আবার মুখিয়ে থাকেন। এর কারণ ঢাকায় যারা আসছেন তাদের সিংহ ভাগই ভারতীয় তারকা। আর প্রতিবেশি দেশ হিসেবে ভারতের সঙ্গে আমাদের সাংস্কৃতিক লেনদেন যতটা না দৃঢ়, তার চেয়ে বেশি আগ্রাসী। ফলে আলো ঝলমলে বিনোদন পেতে সাধারণ মানুষও দেশীয় তারকাদের ভুলে গিয়ে ভারতীয় তারকাদের ভক্ত হিসেবে নিজেকে মেলে ধরছে। তাছাড়া ভারতের মতো এমন বিশাল একটি সাংস্কৃতিক বলয়ের কাছে আমরা নিতান্তই ক্ষুদ্র। আর এ কারণেই দিন দিন বাংলাদেশে ভারতীয় শিল্পীদের আনাগোনা বাড়ছে বলে মনে করছেন দেশীয় সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বোদ্ধারা।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা যায়, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত অন্তত অর্ধশতাধিক ভারতীয় শিল্পী ও কলাকুশলী বাংলাদেশে যাতায়াত করেছেন। যার মধ্যে গত ৩০ জুন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ইউনিলিভার বাংলাদেশের আমন্ত্রণে লাক্সের একটি ক্যাম্পেইনে অংশ নিতে প্রথমবারের মতো ঢাকায় পা রাখেন বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন। সেদিন সন্ধ্যা ৭টায় বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারের রাজদর্শন হলে ‘লাক্স প্রেজেন্টস এ মেসমোরাইজিং ফ্রেগনেন্ট ইভনিং উইথ দীপিকা পাড়ুকোন’ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন এই অভিনেত্রী।

আর এতে দীপিকা দর্শনের জন্যে আগ্রহী ১২ লাখের উপর ভক্ত মুঠোফোনে মিসকল প্রদানের মাধ্যমে প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সেখান থেকে নির্বাচিত ১ হাজার ভক্ত দীপিকার সাক্ষাৎ পায়।

৫ জুন ‘শ্রেয়া ঘোষাল নাইট’ শিরোনামে একটি সংগীত অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ঢাকায় আসেন ওপার বাংলার কণ্ঠশিল্পী শ্রেয়া ঘোষাল। অনুষ্ঠানের আয়োজক বে এন্টারটেইনমেন্ট জানায়, ভারতীয় এই সংগীত শিল্পী সেদিন টানা তিন ঘণ্টা মঞ্চে গান পরিবেশনের মাধ্যমে শ্রোতাদের মাতিয়ে রাখেন। বলে রাখা ভাল, ঢাকায় শ্রেয়ার এটাই প্রথম সফর নয়।

‘সেলিব্রেশন অব মিউজিক’ শিরোনামে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গত ৯ এপ্রিল ঢাকায় আসেন পাকিস্তান ও বলিউড নায়ক-গায়ক ফাওয়াদ খান এবং ভারতীয় সংগীতশিল্পী কেকে। আয়োজক প্রতিষ্ঠান এন্টারেজ এন্টারটেইনমেন্ট জানায়, কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লার সংগীতজীবনের সূবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত ‘সেলিব্রেশন অব মিউজিক’ কনসার্টে গাইতেই তারা ঢাকায় আসেন। ১০ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে কনসার্টটি অনুষ্ঠিত হয়।

‘ব্ল্যাক হর্স প্রেজেন্টস মিকা সিং নাইট’ শীর্ষক কনসার্টে অংশ নিতে ১৫ মে দুপুরে ঢাকায় আসেন ভারতীয় সংগীতশিল্পী মিকা সিং। এম বায়িং আয়োজিত এটিই বাংলাদেশে মিকার প্রথম কনসার্ট।

শুধুই কি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ভারতীয় শিল্পীদের ঢাকায় আগমন?-এর উত্তর ‘না’। সম্প্রতি যৌথ প্রযোজনার পাশাপাশি সর্ম্পূণ বাংলাদেশি ছবিতে অভিনয়ের জন্য কলকাতার অনেক তারকাই ঢাকামুখী হয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতায় গত ২২ এপ্রিল ঢাকায় আসেন ওপার বাংলার নায়ক পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। অনিমেষ আইচ পরিচালিত ‘ভয়ংকর সুন্দর’ ছবির শুটিং করতেই তার ঢাকায় আসা। সে যাত্রায় টানা ২০ দিন বাংলাদেশে অবস্থান করেন তিনি।

মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের পরিচালনায় ‘সম্রাট’ ছবিতে অভিনয় করছেন ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত। গত ৫ জুন ছবিটির শুটিং এ অংশ নিতে তিনি ঢাকায় আসেন। ৬ জুন থেকে টানা পাঁচ দিন শুটিং করে তিনি ঢাকা ত্যাগ করেন।

এদিকে আরো বেশ কিছু ভারতীয় তারকার ঢাকা সফর চূড়ান্ত বলে জানা গিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৩ জুন প্রথমবারের মতো ঢাকায় আসছেন কলকাতার জনপ্রিয় নায়ক সোহম। মূলত ‘বুলেট’ (সম্ভাব্য নাম) শিরোনামের একটি যৌথ প্রযোজনার ছবির মহরত অনুষ্ঠানে অংশ নিতেই তার ঢাকা আগমন বলে জানা গিয়েছে।

ছবিটির বাংলাদেশি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কিবরিয়া ফিল্মস সূত্র জানায়, এ যাত্রা একদিনের জন্য ঢাকা আসছেন কলকাতার এই নায়ক। মহরত অনুষ্ঠান শেষে সে দিনই ভারতে ফিরে যাবেন সোহম।

সোহমের বিপরীতে এই ছবিতে নায়িকা হিসেবে থাকছেন মীম। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ২২ জুলাই থেকে ভারতে ছবিটির শুটিং শুরু হবে। তবে ছবির কিছু অংশের শুটিং বাংলাদেশেও হবে। তখন পুনরায় বাংলাদেশে আসবেন সোহম।

পুরো টালিগঞ্জ যখন ঢাকামুখী, তখন বলিউড তারকারাই বা বাদ যাবেন কেন? আর কারণেই বলিউডের নামিদামি তারকাদের ঢাকায় আনতে উঠেপরে লেগেছে বিভিন্ন ব্র্যান্ড,বহুজাতিক কোম্পানী আর ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানগুলো।

এরই ধারাবকাহিকতা আগামী ১৬ জুন সন্ধ্যায় ঢাকার বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের পুষ্পগুচ্ছ মিলনায়তনে অনুষ্ঠেয় ফ্যাশন শোতে শো স্টপার হিসেবে থাকছেন বলিউড পরিণীতি চোপড়া। এটাই তার প্রথম ঢাকা সফর। আয়োজক প্রতিষ্ঠান গ্রীণ অ্যাপল কমিউনিকেশনস সূত্রে জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে দেশসেরা ডিজাইনারদের পোশাক নিয়ে একটি ফ্যাশন শোর আয়োজন করা হয়েছে। এতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের এক্সক্লুসিভ পোশাক পরে র্যা ম্পের মঞ্চে হাঁটবে মডেলরা। আর এতে শো স্টপার হিসেবে দেখা মিলবে পরিণীতি চোপড়ার।
এদিকে ফ্যাশন শো’তে অংশ নিতে ১৬ জুন দুপুরে ঢাকায় পৌঁছাবে পরিণীতি চোপড়া। এসেই গুলশানের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে বিশ্রাম নেবেন। রাতে অনুষ্ঠান শেষে হোটেলেই বিশ্রাম নেবেন। পরদিন সকালে আবার মুম্বাইয়ের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন তিনি।

পরিণীতি চোপড়ার ঢাকা ত্যাগ করার মাত্র দুই দিনের মাথায় আসছেন মুনমুন সেনের নাতনী রাইমা সেন। তিনি কলকাতার নিয়মিত মুখ হলেও, এবার বাংলাদেশের ছবিতে কাজ করতে চলেছেন। কারণ যৌথ প্রযোজনার একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার বিষয়ে কথাবার্তা চূড়ান্ত করতেই তার ঢাকা সফর।

www.kulaurasongbad.com

নিউজটি শেয়ার করুন

184 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ