জুন ১৮, ২০১৫ ৬:৩৭ পূর্বাহ্ণ

ঢাকায় হলিউডের জর্জ ক্লুনির ‘টুমরোল্যান্ড’


হলিউডের ডাকসাইটে অভিনেতা জর্জ ক্লুনি ঢাকায় আসছেন। একা নয়, সঙ্গে থাকছে তার নতুন ছবি ‘টুমরোল্যান্ড’। ১৯ জুন ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ছবিটি। অস্কারজয়ী পরিচালক ব্র্যাড বার্ড পরিচালিত এ ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জর্জ ক্লুনি ও হিউ লরির মতো তারকারা। ১৯০ মিলিয়ন ডলার বাজেটের এ ছবিটি মুক্তির পরপরই বক্সঅফিসের শীর্ষে জায়গা করে নেয়। গত ২২ মে যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাওয়া ছবিটি এ যাবৎ ঘরে তুলেছে ১৭৭ মিলিয়ন ডলারের বেশি।

সময় এবং মহাশূন্যের মাঝামাঝি এক জগৎ নিয়ে ব্র্যাডের সঙ্গে এ ছবির চিত্রনাট্য করেছেন ডেমন লিন্ডলফ। একই সঙ্গে ছবিটি প্রযোজনা করেছেন পরিচালক ও ডেমন লিন্ডেলওফ। এ ছবিতে এমন এক বিশ্ব দেখানো হবে, যেখানে বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রা সর্বোচ্চ পর্যায়ে। এতে ক্লুনিকে একজন আবিষ্কারক ও রবার্টসনকে উচ্ছল তরুণীর চরিত্রে দেখা যাবে। এন্টারটেইনমেন্ট উইকলিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে লিন্ডেলওফ ছবিটিকে ‘হ্যারি পটার’ সিরিজের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, হগওয়ার্টের কাছে জাদু যেমন, টুমরোল্যান্ডে বিজ্ঞান তেমন’। অর্থাৎ হ্যারি পটারের জাদু বাস্তবতায় যা সম্ভব, তেমন কিছু সম্ভব হয়ে উঠবে বিজ্ঞানের মাধ্যমে। কিন্তু দুটোই আলাদা আলাদা জগৎ। এর আগে বার্ড পরিচালিত বক্সঅফিস কাঁপানো ছবিগুলো হলো ‘দ্য ইনক্রেডিবলস ও মিশন ইমপসিবল : গোস্ট প্রটোকল’। এবার কার সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন জর্জ ক্লুনি ও ব্রিট রবার্টসনের মতো তারকা। তাই এ ছবিটি হয়ে উঠেছে এ বছরের প্রত্যাশিত ছবিগুলোর মধ্যে অন্যতম। এ ছাড়া টুমরোল্যান্ডের মাধ্যমে বড় পর্দায় ফিরছেন নামি অভিনেতা টিম ম্যাকগ্রে।

গত বছর ব্রিটিশ আইনজীবী আমাল আলামুদ্দিনের সঙ্গে পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হন জর্জ ক্লুনি । বিয়ের তিন সপ্তাহ পর ‘টুমরোল্যান্ড’-এর শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি। বলা যায় বিয়ের পর এটি তার মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম চলচ্চিত্র। ছবিতে জর্জ ক্লুনি অভিনয় করেছেন ফ্র্যাঙ্ক চরিত্রে। তিনি একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যের পেছনে ছুটতে থাকেন। ব্রিট রবার্টসন অভিনয় করেছেন বিজ্ঞানমনস্ক তরুণী কেসি চরিত্রে। সে একটি বিপজ্জনক মিশনে বের হয়, যার উদ্দেশ্য সময় ও অক্ষের মধ্যে এমন একটি জায়গা আবিষ্কার, যার নাম ‘টুমরোল্যান্ড’। সেখানে গেলে জানা যাবে, মানুষের ভবিষ্যতের সত্য রূপটি কী। আর এর জন্য পৃথিবীতে তিনটি পরিবর্তন আনতে হয়, যা চিরস্থায়ী পরিবর্তন হিসেবে টিকে থাকবে। ১৩০ মিনিটের এ ছবিটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন শেরম্যান ব্রাদার্স। এরই মধ্যে ছবির ‘দেয়ার ইজ দ্য গ্রেট বিউটিফুল টুমরো’ গানটি টপচার্টের শীর্ষ ২০ গানের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

181 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ