আগস্ট ২৭, ২০১৭ ১১:১২ অপরাহ্ণ

অস্ট্রেলিয়াকে চাপে রেখেই দিন শেষ করল বাংলাদেশ


টস জিতে ব্যাট করতে নামার পর তামিম আর সৌম্যর ব্যাটে ১০ রান। এরপরই যেন হঠাৎ ঝড় তুলেছিলেন প্যাট কামিন্স। সেই ১০ রানে বসিয়ে রেখেই বাংলাদেশের ৩ উইকেট তুলে নিলেন এই পেসার।

নাটকের স্ক্রিপ্টটা যেন তখনই লেখা হয়ে গিয়েছিল। যে দলটিকে ২-০ ব্যবধানে হারানোর কথা বলে আসছিল বাংলাদেশ, হোক না তারা অস্ট্রেলিয়া। বলার পেছনেও যে নিজেদের সামর্থ্যের ওপর আত্মবিশ্বাস বড় নিয়ামক হিসেবে কাজ করছে- তা বলাইবাহুল্য। মাঠে নেমে সেটা প্রমাণ করাটাই যেন বড় চ্যালেঞ্জ।

লড়াই হবে সেয়ানে সেয়ানে নিউজে এমন হেডিং দেখে কেউ কেউ হয়তো ভ্রূ কুঁচকেছিলেন; কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের সাঁড়াশি বোলিংয়ের মুখে ২৬০ রানে বাংলাদেশ অলআউট হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া প্রথমদিনই ব্যাট করতে নামার সুযোগ পায়; কিন্তু তখনও কী তারা ভেবেছিল, কী মায়াবী জাদু নিয়ে অপেক্ষা করছে বাংলাদেশের স্পিনাররা!

১০ রানে অস্ট্রেলিয়া তুলেছিল বাংলাদেশের ৩ উইকেট। আর বাংলাদেশ খুব বেশি ব্যবধান তৈরি করতে না দিয়ে ১৪ রানেই তুলে নিয়েছে তাদের ৩ উইকেট। প্রথমটি ৯ রানে। পরের দুটি অস্ট্রেলিয়াকে ১৪ রানে বসিয়ে। দিন শেষ হলো অস্ট্রেলিয়া চরম চাপের মুখে থেকে।

৩ উইকেটে ১৮ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে স্টিভেন স্মিথরা। খেলেছে মাত্র ৯ ওভার। তবে দিন শেষ করার আগে নিশ্চিত একটা প্রশ্ন নিজেদের হৃদয়ে ধারণ করে নিয়ে মাঠ ত্যাগ করেছেন স্মিথ আর ম্যাট রেনশ। সেটা হলো, বাংলাদেশের স্পিনারদের মোকাবেলা করে কতদূর যাওয়া যাবে?

বিশেষ করে মেহেদী হাসান মিরাজের অফ স্পিনে কী বিষ সেটা হাড়ে হাড়ে টের পেলেন ডেভিড ওয়ার্নার। বাংলাদেশকে ২৬০ রানে থামিয়ে দিয়ে প্রথমদিনই ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। একপাশ থেকে শফিউল আরেক পাশ থেকে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে বল দিয়ে অস্ট্রেলিয়া ইনিংসে আক্রমণের দায়িত্ব তুলে দিলেন অধিনায়ক মুশফিক।

ষষ্ঠ ওভারেই মিরাজের স্পিন বিষে নীল হলো অস্ট্রেলিয়া। ওভারের দ্বিতীয় বলেই মিরাজের বলে পুরোপুরি পরাস্ত হলেন ওয়ার্নার। আবেদন করতেই আঙুল তুলে দিলেন আম্পায়ার আলিমদার। তবে নিজের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন ওয়ার্নার। এ কারণে রিভিউ চেয়ে বসলেন তিনি। রিভিউতে দেখা গেল, ব্যাটের কানায় লেগে প্যাডে আঘাত হেনেছে বল। সুতরাং আলিমদার নিজের ভুল স্বীকার করে নটআউট ঘোষণা করলেন।

পরের বলে আর কোনো সন্দেহ-সংশয়ের অবকাশ রাখলেন না মিরাজ। এবারও পুরোপুরি পরাস্ত ওয়ার্নার। এবারও জোরালো আবেদন। কোনো দ্বিধা না করে আবারও আঙ্গুল তুলে দিলেন আলিম দার। এবার আর রিভিউর আবেদনও করলেন না ওয়ার্নার। ৮ রান করে ফিরে গেলেন তিনি।

পরের ওভারে বোলিংয়ে আসলেন সাকিব আল হাসান। ওয়ার্নারের আউটে চাপে পড়া অস্ট্রেলিয়াকে আরও চেপে ধরলেন যেন তিনি। সাকিবের প্রথম বলেই দ্রুত সিঙ্গেল নিতে গিয়ে রানআউট হয়ে গেলেন নতুন উইকেটে আসা উসমান খাজা। রানের খাতাই খুলতে পারলেন না তিনি।

স্পিন ঘূর্ণি অব্যাহত রাখলেন সাকিব। উপমহাদেশের উইকেটে স্পিন যে কতটা বিষাক্ত সেটা তিনি আবারও বুঝিয়ে দিলেন অস্ট্রেলিয়ানদের। উসমান খাজা আউট হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া নাইটওয়াচম্যান (রাতের পাহারাদার) হিসেবে উইকেটে পাঠিয়েছিল নাথান লিওনকে। কিন্তু তিনিও সাকিবের ঘূর্ণি ফাঁদে পড়লেন। এলবি আউট হয়ে গেলেন কোনো রান না করেই।

১৪ রানেই টাপটপ পড়ে গেলো অস্ট্রেলিয়ার ৩ উইকেট। দারুণ চাপে পড়ে গেলো স্মিথের দল। শেষ পর্যন্ত ৯ ওভারে ৩ উইকেটে ১৮ রান তুলেই দিনের খেলা শেষ ঘোষণা করলেন আম্পায়াররা। যদিও নির্ধারিত ওভারের চেয়ে ১ ওভার কম খেলা হয়েছে আজ। বৃষ্টির কারণেই হয়তো বা। দিন শেষে ৬ রান নিয়ে উইকেটে রয়েছেন ম্যাট রেনশ এবং স্টিভেন স্মিথ রয়েছেন ৩ রানে। এখনও বাংলাদেশের চেয়ে ২১৪ রান পিছিয়ে অস্ট্রেলিয়া। হাতে আছে আরও ৭ উইকেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

152 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ