জুলাই ৩১, ২০১৫ ৪:৪৭ অপরাহ্ণ

সিলেটে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মধ্যে সংঘর্ষ, গুলি


কুলাউড়া সংবাদ,   শুক্রবার ৩১ জুলাই ২০১৫ :: সিলেট নগরের কালীবাড়ি এলাকায় গত বুধবার রাতে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে গোলাগুলিও হয়। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হন।
ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনকে আটক করেছিল পুলিশ। পরে দুই পক্ষে সমঝোতা হওয়ায় রাতেই তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এমনকি এ ঘটনায় কোনো পক্ষ থানায় অভিযোগও দেয়নি।
জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি সুজেল তালুকদার এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহানগর কমিটির সদস্য ইমরান আহমদ ও গুলজার আহমদের পক্ষের অনুসারীদের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নগরের জালালাবাদ থানা এলাকার আখালিয়া ও কালীবাড়ি এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে দুই পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা চলে আসছিল। বিরোধ মীমাংসায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা দুই পক্ষকে নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় কালীবাড়ি মন্দিরের পাশে একটি বাসায় বৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকের একপর্যায়ে এক পক্ষ উঠে চলে যায়। তখন দুই পক্ষে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, রাত সাড়ে নয়টায় কালীবাড়ির কাছে দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে কালীবাড়ি ও আখালিয়া এলাকায় অবস্থান নিয়ে শুরু হয় সংঘর্ষ। এ সময় বেশ কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা যায়। ভাঙচুর করা হয় একটি প্রাইভেট কার, একটি ট্রাক ও দুটি মোটরসাইকেল। তখন এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলেন, রাত পৌনে ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে অবস্থান নেয় জালালাবাদ থানার পুলিশ। তখনো সংঘর্ষ চলছিল। পরে পুলিশ ৬৫টি ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ঘটনাস্থল থেকে আটক করে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি সাইফুল আহমদ ওরফে ছইফুলসহ আরও চারজনকে। এরপর দুই পক্ষ ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। তাদের মধ্যে সমঝোতা হওয়ার পর রাত প্রায় একটার দিকে পাঁচজনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।
এ বিষয়ে জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বলেন, কোনো পক্ষ থানায় অভিযোগ দেয়নি। তাই মামলাও হয়নি। আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ ছিল না। তাই তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
সিলেট জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর জগদীশ চন্দ্র দাশ জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষে এ সংঘর্ষ হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

190 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ