ডিসেম্বর ২৯, ২০১৮ ৮:৫২ অপরাহ্ণ

ভোট গণনা পর্যন্ত কেন্দ্রে থাকার আহ্বান শেখ হাসিনার


আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ‘আগামীকাল রোববার ভোটগ্রহণ শুরু থেকে গণনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত কেন্দ্রে থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত ভোট বর্জন করার গুজব তুলতে পারে। কোনো কিছুতে কান না দিয়ে ভোটের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালাতে হবে নেতাকর্মীদের। নিজেরা ভোট দেবেন এবং অপরকে ভোট দিতে বলবেন।’

শনিবার দুপুরে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন বিএনপি-জামায়াতের হামলায় আহত দিনাজপুরের আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুর রহমানকে দেখতে গিয়ে এ আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। মাহবুবুর রহমান দিনাজপুরের আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজের শিক্ষক।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত অনেক অপকৌশল গ্রহণ করবে। এটা তাদের পুরনো অভ্যাস। নির্বাচনে তারা আরও কী কী অপকৌশল গ্রহণ করে তার ওপর নজর রাখা দরকার।’

দলীয় নেতাকর্মী ও প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভোটের মাঠে শক্ত অবস্থান নিতে হবে। বিএনপি-জামায়াত কিন্তু ভোট বানচাল এবং নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।’

সারাদেশে ভোটকেন্দ্রগুলো পাহারা দিতে কেন্দ্র রক্ষা কমিটির প্রতিও আহ্বান জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘গণতন্ত্র ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় জনগণকে আপনাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচন বয়কট করলেও প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের কাছ থেকে ভোটের হিসাব নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বাড়ি ফিরতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘নির্বাচন বানচাল করতে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছাড়াও নানা ষড়যন্ত্র চলছে। তবে ভোটারদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তারা ভোট দিলে ক্ষমতায় আসব, অন্যথায় নয়।’

তাই যে কোনো ধরনের অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রের বিষয়ে সজাগ থাকতে ভোটার এবং নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।


80 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ