জুন ১৫, ২০১৫ ৬:৪০ অপরাহ্ণ

নিখোঁজের ৩ মাস পর ছাত্রদল নেতা বোমাসহ আটক


ছাত্রদলের সাবেক নেতা তিন মাস নিখোঁজ থাকার পর সোমবার ফরিদপুর থেকে আটক হয়েছেন বলে দাবি করেছে র‌্যাব। আনিছুর রহমান তালুকদার খোকন নামে ওই যুবক ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক। তার সঙ্গে দুই সহযোগীকেও আটক করা হয়েছে।

বিএনপি বলছে, তিন মাস আগে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পর থেকেই খোকন নিখোঁজ ছিলেন।

তবে র‌্যাব দাবি করছে, বিস্ফোরক আইনে সূত্রাপুর ও পল্টন থানায় মামলা থাকায় খোকন পলাতক ছিলেন। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার বেলা ৩টার দিকে ফরিদপুর সদরের কানাইপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার দুই সহযোগীকেও আটক করা হয়েছে। আটক অন্য দু’জন হলেন- মোহাম্মদ আলী ভুইয়া ও সোহাগ গাজী।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক মাকসুদুল আলম বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বাংলামেইলকে জানান, তিন মাস আগে বিএনপির আন্দোলনের সময় খোকন নিখোঁজ হয়েছিলেন। পরিবার জানিয়েছিল, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, ‘নিখোঁজের তিন মাস পর আজকে জানতে পারলাম র‌্যাব তাকে ফরিদপুর থেকে আটক করেছে।’

বাংলামেইলের ফরিদপুর প্রতিনিধিকে পুলিশ জানিয়েছে, বিকেলে র‌্যাব-৮ (ফরিদপুর) এর একটি টিম কানাইপুরের তেঁতুলতলা এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় ছাত্রদলের সাবেক নেতা খোকনকে আটক ও ১৫টি পেট্রোলবোমা, ২৫টি বোমা, ৮টি মোবাইল সেট এবং ১০টি সিম কার্ড জব্দ করা হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মোহাম্মদ আলী ভুইয়া ও সোহাগ গাজী নামে দু’জনও আটক হন।

পুলিশ আরো জানায়, আটককৃতদের ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাব-৮ এর ফরিদপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক খালেদউজ্জামান জানান, চলতি বছরের ৮ মার্চ খোকনের বিরুদ্ধে ঢাকার সূত্রাপুর ও পল্টন থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলা দায়েরের পর থেকেই খোকন পলাতক ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

146 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ