মে ২৬, ২০১৬ ৩:০৬ পূর্বাহ্ণ

কাল থেকে একাদশে ভর্তি, জেনে নিন আবেদনের নিয়ম


কুলাউড়া সংবাদ: ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদনের নিয়মাবলি প্রকাশ করা হয়েছে। বুধবার (২৫ মে) ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইটে ভর্তি সংক্রান্ত এ নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়।

আগামীকাল সকাল ৯টা থেকে অনলাইনে এবং টেলিটক বায়োমেট্রিক নিবন্ধিত প্রি-প্রেইড সংযোগে এসএমএসের মাধামে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হবে।

অনলাইনে ১০টি, এসএমএসের মাধ্যমে ১০টিসহ মোট ২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একজন শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে। দুই মাধ্যমেই যোগ্যতানুযায়ী মেধাক্রম সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো আবেদনকারীকে জানিয়ে দেয়া হবে। অনলাইনে এক জন শিক্ষার্থী নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যখন খুশি তখন ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবে।

অনলাইনে আবেদন করার জন্য প্রথমে টেলিটক সংযোগের মাধ্যমে ১৫০ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

টাকা পরিশোধের নিয়ম
CAD WEB Board ROLL Year Reg.no. লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে আবেদনকারীর নাম, শিক্ষা বোর্ড, পাসের সাল, এবং রোল নম্বরসহ আবেদন ফি বাবদ ১৫০ টাকা কেটে নেয়া হবে জানিয়ে একটি পিন নম্বর প্রদান করা হবে।ফি প্রদানে সম্মত হলে মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD Yes PIN বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধিত মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফি সঠিকভাবে জমা দেয়া হলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি ট্রান্সজেকশন আইডিসহ এসএমএস যাবে।

আবেদনের নিয়ম
টেলিটকে আবেদন ফি দেয়া সম্পন্ন হলে ভর্তির ওয়েবসাইট (www.xiclassadmission.gov.bd)-তে গিয়ে Apply Online-এ ক্লিক করতে হবে। তারপর প্রয়োজনয়ীয় প্রক্রিয়ার মাধ্যেমে আবেদনকারী একটি ফরম পাবে। সেটি ডাউনলোড করে নিতে হবে।

মোবাইলে আবেদনের নিয়ম
টেলিটকের সংযোগের মাধ্যেমে মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD EIIN Key word এর দুই অক্ষর বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস রোল নম্বর রেজিস্ট্রেশন নম্বর ভর্তিচ্ছু শিফটের প্রথম তিন অক্ষর (শিফট না থাকলে N) লিখে দিয়ে ভার্সনের প্রথম অক্ষর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

উদাহরণ: CAD 696954 SC DHA 123456 2016 1523678902 D B FQ. এরপর নিশ্চিতকরণ এসএমএস আসবে।

আর আবেদন ফি প্রদানের জন্য এসএমএসে আবেদনকারীর নাম, প্রতিষ্ঠানের EIIN ও নাম, গ্রুপের নাম এবং শিফটসহ ফি বাবদ ১২০ টাকা কেটে নিয়ে তা জানিয়ে পিন কোড দেওয়া হবে। এরপর মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD লিখেদিয়ে Yes PINContact No. (বায়োমেট্রিক নিবন্ধিত সিম নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

২৬ মে থেকে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে। শেষ হবে ৯ জুন। ১৬ জুন মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১৮ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে। ১০ জুলাই থেকে ২০ জুলাই বিলম্ব ফি দিয়ে ভর্তি হওয়া যাবে।

ভর্তি হওয়ার পর ক্লাস শুরু হবে ১০ জুলাই থেকে। ১ জুলাই থেকে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরুর নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু ঈদুল ফিতরের কারণে ১০ জুলাই থেকে ক্লাস শুরু হবে।

এদিকে পুনঃনিরীক্ষণের ফল জুনের ৬ বা ৭ তারিখে প্রকাশ হবে। এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, একাদশে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার দুই বা তিনদিন আগে পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

প্রথম ফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল দেয়ার নিয়ম। ১১ মে এসএসসির ফল প্রকাশ করা হয়েছে। নিয়মানুযায়ী ১১ জুন পর্যন্ত সময়। যেহেতু ৯ জুন পর্যন্ত একাদশে আবেদনের সময়সীমা, সেহেতু দুই থেকে তিনদিন আগে ফল দেয়া হবে। যাতে পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফলে যারা পাস করবে তারা যেন একাদশে ভর্তির আবেদন করতে পারে।

উল্লেখ্য, এবার এসএসসি পরীক্ষায় পাস করেছে ১৪ লাখ ৫২ হাজার ৬০৫ জন শিক্ষার্থী, যার সিংহভাগ এ প্রক্রিয়ায় অংশ নেবে। সঙ্গে আছে ২০১৩, ২০১৪, ২০১৫ সালে পাস করা শিক্ষার্থী। (২০১৪ থেকে এসএসসি উত্তীর্ণরা এবং ২০১৩ থেকে যারা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করেছে তারা একাদশ ভর্তি প্রক্রিয়ায় অংশ নেবে)।

নিউজটি শেয়ার করুন

378 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ