জানুয়ারি ২২, ২০১৬ ১:৫০ পূর্বাহ্ণ

আ.লীগ মানুষের জন্য পুরস্কার নিয়ে আসে – সিলেটের প্রধানমন্ত্রী


আওয়ামী লীগ সভাপতি ও  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার মানুষের জন্য পুরস্কার নিয়ে ক্ষমতায় আসে। আমাদের সরকার যখন ক্ষমতায় আসে তখনই মানুষের উন্নয়ন হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেটের ঐতিহাসিক আলীয়া মাঠে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৮ সালেও আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের ভোটে জয়ী হয়েছে। বিগত নির্বাচনেও জনগনের ভোটে আওয়ামী লীগ সরকার বিজয়ী হয়েছে। আমাদের লক্ষ দেশের উন্নয়ন, আমাদের লক্ষ্য ছেলে-মেয়ে লেখাপড়া শিখবে।’

সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ দূর করতে আওয়ামী লীগ সরকার কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত সরকার যখন ক্ষমতায় যায়, তখন বোমা হামলা চালায়। সিলেটেও তারা বোমা হামলা চালিয়েছিল। সিলেটে ১০টির বেশি স্থানে তারা বোমা হামলা করেছিল। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় গেলে মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলে।

বিভিন্ন সময়ে সিলেটে চালানো হামলাগুলোর উদাহরণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সিলেটের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের উপর হামলা করা হয়েছে, আওয়ামী লীগ নেতা ইব্রাহিমকে হত্যা করা হয়েছে, সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় বোমা হামলা করা হয়েছে। বিএনপি-জামায়াতের সময় বিদেশিরাও নিরাপদ ছিল না। সিলেটে শাহজালালের মাজারে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের উপরও হামলা হয়েছিল।’

দেশের নানা উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৮ সালে আমরা যখন ক্ষমতায় আসি তখন অর্থনৈতিক মন্দা ছিল। কিন্তু আমরা চ্যালেঞ্জ নিয়ে দেশের উন্নয়ন করেছি। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হয়। আমরা দেশের উন্নয়ন, মানুষের উন্নয়ন করেছি। দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছি।’

তিনি বলেন, ‘বাঙালি জাতি অদম্য জাতি। বাঙালি জাতিকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবে না। বাংলাদেশ এখন বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াচ্ছে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল।’

বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চার নেতা ও মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার সুফল মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া আওয়ামী লীগের লক্ষ্য।’

প্রবাসীদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রবাসীরা সব সময় সরকারকে সহযোগিতা করে। আমরাও তাদের বিভিন্ন সুযোগ করে দেই। আমরা ক্ষমতায় গেলে তাদের দেখি।’

শেখ হাসিনা অভিযোগ করেন, ‘আমরা ক্ষমতায় গেলে দেশের উন্নয়ন করি আর বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় গেলে দেশে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে।’

বিএনপি-জামায়াত নির্বাচন বানচালের নামে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তাদের রক্ষা নেই। তাদের স্থান এই দেশে হবে না। জনগণ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। যারা মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে তাদের বিরুদ্দে মামলা হয়েছে। তাদের প্রত্যেকের বিচার হবে।’

জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করেছিলেন- মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তিনি ক্ষমতা দখল করে যুদ্ধাপরাধের বিচার বন্ধ করে দিয়েছিলেন। আমরা ক্ষমতায় এসে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছি। জাতির জনকের হত্যাকারীদের পুনর্বাসন করেছিলেন জিয়াউর রহমান। কিন্তু আমরা জাতির জনকের হত্যাকারীদের বিচার করেছি। যুদ্ধারপরাধীদেরও বিচার আমরা করবো। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ কলঙ্কমুক্ত হবে।

বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে বাংলাদেশ বিমানে লুটপাট করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিমান ছিল মরা লাশ। আমরা বিমানে প্রাণের সঞ্চার করেছি।’

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন- অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

304 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ