জুন ২৩, ২০১৬ ৪:২৮ অপরাহ্ণ

আ.লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা


ঢাকা : আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ‍জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু ভবন এলাকা ত্যাগ করার পর বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকাল সাড়ে ৮টায় প্রধানমন্ত্রী প্রথমে নিজে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলের শীর্ষ নেতাদের নিয়েও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর শান্তির প্রতীক সাদা পায়রা অবমুক্ত করেন ও বেলুন উড়িয়ে দেন। সেখান থেকে তিনি বঙ্গবন্ধু ভবনের ভেতরে যান ও বেশ কিছু সময় অতিবাহিত করেন।

সভাপতি আবুল হাসনাত ও সাধারণ সম্পাদক শাহে আলমের নেতৃত্বে মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণ, সভাপতি একে এম রহমত উল্লা ও সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের নেতৃত্বে মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর।

সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদের নেতৃত্বে আওয়ামী যুবলীগ। সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, মোতাহার হোসেন মোল্লা ও এডভোকেট শামসুল হক রেজার নেতৃত্বে কৃষক লীগ, সভাপতি মোল্লা আবু কাওসার ও সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক অপু উকিলের নেতৃত্বে যুব মহিলা লীগ বঙ্গববন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।

এছাড়াও মহিলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, ছাত্রলীগ মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, ঢাকা কলেজ শাখা ছাত্রলীগ, তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগ, ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ সময় বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে উপস্থিত সবার কণ্ঠে উচ্চারিত হতে থাকে ‘শুভ শুভ শুভ দিন, আওয়ামী লীগের জন্মদিন’ ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’, ‘জামায়াত শিবির রাজাকার, এই মুহূর্তে বাংলা ছাড়’, ‘যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি চাই, দিতে হবে’, ‘মুজিবের বাংলায়, খুনিদের ঠাঁই নাই’।

নিউজটি শেয়ার করুন

error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ