জুন ১৯, ২০১৫ ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ

ভারতে বিষাক্ত মদ পানে ২৭ জনের মৃত্যু


ভারতে বিষাক্ত মদ পানে মৃত্যু ঘটেছে অন্তত ২৭ জন মানুষের; ভারতের ফিল্মি শহর মুম্বাইয়ে ঘটেছে এ মর্মান্তিক ঘটনা; স্থানীয় পুলিশ সূত্র জানায়। জানা যায়, গত বুধবারের মুম্বাইয়ের মালাদ অঞ্চলের এক হতদরিদ্র বস্তি-এলাকায়, আনুমানিক সকালের দিকে এ ঘটনা ঘটে। বস্তিবাসী কিছু মানুষ মদ পানের পর আকস্মিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

অন্তত ৩০ জন মানুষ আকস্মিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ার পর স্থানীয়রা তাদের হাসপাতালস্থ করে। শুক্রবার নাগাদ ২৭ জনের মৃত্যু ঘটে। বলা হচ্ছে, মৃত্যুর এ হার বাড়তে পারে। এ ঘটনায় আবারও উঠে এসেছে ভারতে মদপানে মৃত্যুর বিষয়টি। স্থানীয় মদ পানে নিয়মিত বিরতিতে, বিশেষত হতদরিদ্র অঞ্চলগুলোয় মানুষের মৃত্যু ঘটে।

নিকট অতীতের ঘটনা। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে উত্তর প্রদেশে বিষাক্ত মদপানে মারা যায় ২৯জন মানুষ। কয়েক মাসের ব্যবধানে দ্বিতীয়বার এ ধরনের ঘটনা ঘটলো। মৃত একজনের স্ত্রী টায়রা খানের সঙ্গে কথা হলে জানা যায়, তার স্বামী মদ পানের তিন ঘণ্টার মধ্যে মৃত্যুমুখে পতিত হয়। তার ঘন ঘন বমি হচ্ছিল। তলপেটে তীব্র ব্যথা অনুভূত হচ্ছিল। টায়রা খান তিন সন্তান নিয়ে অকূল পাথারে পড়েছেন।

ইতোপূর্বে ঘটে যাওয়া এমন কিছু মৃত্যুর ঘটনা উল্লিখিত হয়েছে ব্রিটন বার্তাসংস্থা বিবিসিতে। ২০১১ সালে বাংলাদেশের পার্শ্ববর্তী পশ্চিমবঙ্গে শুধুমাত্র বিষাক্ত মদপানে ১৭০ জনের মৃত্যু ঘটে। এর আগে ২০০৯ সালে উত্তরপ্রদেশে মৃত্যু ঘটে ৩০ জনের। একই বছর গুজরাটে বিষাক্ত মদপানে শতাধিক মানুষ মারা যায়। মুম্বাইয়ের ঘটনাটি নতুন করে এ চিত্রগুলোকে সামনে নিয়ে এসে ভারতের একটি উপেক্ষিত দিককে উন্মোচিত করে দিয়েছে বলে মনে করছেন স্থানীয় নাগরিকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

189 বার মোট পড়া হয়েছে সংবাদটি
error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ