সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৫ ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

জুতায় ক্যামেরা, শর্ট স্কার্ট সাবধান!


হোটেলের ওয়াশরুমে কিংবা শপিংমলের পোশাক ট্রায়াল রুমে গোপন ক্যামেরা রেখে ধরা খেয়েছেন অনেকেই। এবার আরো ভয়াবহ। জুতায় ক্যামেরা বসিয়ে শপিং মলে নারীদের অশ্লিল ছবি তোলার সময় হাতে নাতে ধরা পরেছেন এক আইনজীবী।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই আইনজীবী তার ডান পায়ের জুতাতে ওই ক্যামেরা লাগিয়ে রাখতেন। আর ওই পা এমনভাবে রাখতেন যেখান থেকে বিশেষ করে শর্ট স্কার্ট পরা নারীদের অশ্লীল ছবি তোলা যায়। তার ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

৩৪ বছরের এই আইনজীবী একটি ওয়েবসাইট থেকে এরকম ছবি তোলার কৌশল শিখেছেন বলে স্বীকার করেছেন। আটকের পর পুলিশ তার কাছ থেকে ১২টি অশ্লীল ভিডিও উদ্ধার করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিল্লির এক নামী শপিং মলে। রোববার শপিংমলে ওই আইনজীবীকে বারবারই ডান পা বাড়িয়ে মহিলাদের পিছনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছিল। এ আচরণ সন্দেহজনক মনে হওয়ায় শপিং মলের ম্যানেজার ওই আইনজীবীকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে শুরু করেন।

এ সময় তিনি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে মলের নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে ধরে ফেলেন। এরপর তার জুতায় গোপন ক্যামেরা পুলিশে খবর দেয় মল কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ জানিয়েছেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির সংশ্লিষ্ট ধারায় ওই আইনজীবীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তার কাছ থেকে উদ্ধারকৃত ভিডিও ক্লিপগুলি তিনি নিজে দেখার জন্য তুলেছেন, নাকি ইন্টারনেটে আপলোড করেছেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

error: আপনি কি খারাপ লোক ? কপি করছেন কেন ?? হাহাহ